Selenium (সেলেনিয়াম): ডা.এইচ.সি.এলেন

৪১.২। Selenium (সেলেনিয়াম)
#নিজস্বকথাঃ
১। অতিরিক্ত শুক্রক্ষয় বা অতিদীর্ঘ রোগ ভোগের পর দেহ ও মনের অবসাদ।
২। মলত্যাগকালে শুক্রক্ষরণ।
৩। কামভাবের প্রাবল্য ও শুক্রতারল্য।
৪। স্বরভঙ্গ ও কোষ্ঠকাঠিন্য।
#মূলকথাঃ
১। সর্দি ভালো হয়ে ডায়রিয়া হয়।
২। উত্তাপে বৃদ্ধি, সূর্যোদয় হলে বৃদ্ধি এবং সূর্যাস্ত হলে উপশম।
৩। পায়খানা করতে বসলে অসারে প্রোস্টেটিক ফ্লুয়িড নির্গত হয়।
৪। আহারের পর সর্বাঙ্গে বিশেষত পেটে দপদপানি অনুভূতি, নোনতা খাবার খেতে অনীহা।
৫। রতিক্রিয়ার বিষয়ে সর্বদা চিন্তা করে কিন্তু যৌন অক্ষমতা।
#উপযোগিতাঃ
১। যাদের রঙ ফর্সা, সুন্দর চেহারা অথচ মুখ, হাত-পা, পায়ের পাত বা দেহের কোন একটি অঙ্গ বেশীরকম শুকিয়ে যায় তাদের পক্ষে উপযোগী। বৈষয়িক বিষয়ে ভীষণ ভুলোমন অথচ যা ভুলে গেছে তাই স্বপ্ন দেখে।
২। মাথাযন্ত্রণা: মাতালদের, লাম্পট্য জীবন-যাপনে অভ্যস্ত এমন লোকদের, লেমনেড, চা, মদ অত্যধিক গ্রহণ করে মাথাযন্ত্রণা, যা প্রতিদিন বিকালে হয়। মাথার চুল, ব্রু, দাড়ি, গোঁফ, জননেন্দ্রিয়ের পাশের লোম বা চুল পড়ে যায়।
৩। মানসিক বা দৈহিক পরিশ্রমে, টাইফয়েড বা টাইফাস জ্বরের পরে, লাম্পট্য জীবন যাপনের পরে সহজেই ক্লান্ত, অবসন্ন দূর্বল হয়ে পরে। টাইফয়েড জ্বরের পর মেরুদন্ডে অত্যন্ত দূর্বলতা- যেন পক্ষাঘাতগ্রস্থ হয়ে পড়বে এই ভয় হয়। আক্রান্ত অঙ্গ শুকাতে থাকে।
৪। শুয়ে থাকার, ঘুমিয়ে পড়া অদম্য ইচ্ছা- দেহের সমস্ত শক্তি যেন শিঃশেষিত, গরমকালে বিশেষতঃ এই অবস্থা হয়। গরম, ঠান্ডা বা স্যাৎস্যাতে যাই হোক না কেন বাতাসের ঝাপ্টা লাগা একান্তই অপছন্দ। মদ খাওয়ার দারুণ ইচ্ছা- না পেলে যেন পাগল হয়ে যাবে।
৫। স্বরলোপ: অনেকদিন ধরে স্বরযন্ত্র চালনা করে, গান শুরু করলে স্বর ফ্যাসফেসে হয়ে যায়, অনবরত গলা পরিষ্কারের জন্য গলা খাকারি দিতে বাধ্য হয়, স্বচ্ছ ভাতের মাড়ের মত শ্লেষ্মা উঠে (আর্জে-মে, স্ট্যানাম), ক্ষয়রোগ হতে স্বরযন্ত্র প্রদাহ এসব লক্ষণে উপযোগী।
৬। কোষ্ঠবদ্ধতা: লম্বা শক্তমল, মল বের হতে চায় না, টেনে বের করতে হয় (এলোজ, ক্যাল্কে-কা, স্যানিকি, সিপিয়া, সাইলি), আন্ত্রিক জ্বরের পরে সাংঘাতিক কোষ্ঠবদ্ধতা এসব লক্ষণে উপযোগী। সর্দি হয়ে উদরাময় দেখা দেয়। রাতে ক্ষুধার্ত হয়ে পড়ে (সিনা, সোরিন)।
৭। প্রসাব: কালচে লাল, পরিমাণে অল্প-অসমান, লাল বালির মত তলানি পড়ে, হাঁটাচলা করলে অসাড়ে ফোটা ফোটা প্রসাব পড়তে থাকে।
৮। ধ্বজভঙ্গ অথচ কামেচ্ছা থাকে, মাথায় অশালীন চিন্তাভাবনা কিন্তু দৈহিকভাবে অক্ষম (হঠাৎ করে ধ্বজভঙ্গ লক্ষণ দেখা দিলে- ক্লোরিণ)। বহুক্ষণ যাবৎ রমন চেষ্টা করলেও লিঙ্গোত্থান ধীরে ধীরে হয়। লিঙ্গ দৃঢ় হয় না, দ্রুত বীর্যপাত হয়, যৌনসঙ্গমের পরে দূর্বল হয়ে পড়ে, মেজাজ ঠিক থাকে না। বসে থাকলে, মলত্যাগকালে, ঘুমের মধ্যে প্রায়ই অসাড়ে বীর্য ও প্রষ্টেট গ্ল্যান্ড হতে নিঃসৃত রস ফোটা ফোটা বের হতে থাকে, গ্রীট বা মুত্রপথে চকচকে লালা স্রাব (ক্যালাডি) এসব লক্ষণে উপযোগী।
৯। সম্বন্ধ: যৌন দূর্বলতায়- ক্যালেডি, নেট-মি, স্ট্যাফি ও এসি-ফসের পরে প্রয়োগ করলে এ ঔষধ ভাল ফল দেয়। জননেন্দ্রিয় ও মুত্রযন্ত্র সংক্রান্ত লক্ষণে- ফসফরাস তুলনীয়। গায়ক ও বক্তাদের স্বরযন্ত্র প্রদাহ লক্ষণে- এলুমিনার সাথে তুলনীয়। পারদ বা সালফারের অপব্যবহারে চুলকানিযুক্ত চর্মরোগ চাপা পড়লে প্রায়ই সেলিনিয়ামের প্রয়োজন হয়।
১০। বৃদ্ধি: বাতাসের ঝাপটা লাগলে, রোদের উত্তাপে, লেমনেড, চা বা মদ খেলে। উপশম: মুখ দিয়ে ঠান্ডা পানি বা ঠান্ডা বাতাস নিলে উপশম।

#সংকলনে: ডা.এইচ.এম.আলীমুল হক
ডিএইচএমএস (বিএইচবি), কিউএইচসিবি (বিইউবি)
চেম্বার: আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী, মৌচাক, মিজমিজি
সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ।
চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শের জন্য: ১০০টাকা বিকাশ করুন
(বিকাশ পার্সনাল: ০১৯১৬-৫১১ ৩৩৭) তারপর কল করুন
এই নাম্বারে: 01616-511337, 01816-511337