Calc. Flour (ক্যাল্কে. ফ্লোর): ডা.হাসান মির্জা

(২) Calc. Flour (ক্যাল্কে.ফ্লোর)
#নিজস্বকথাঃ
১। গ্রন্থির বৃদ্ধি, গ্রন্থি প্রদাহ, অস্থিক্ষত, ক্ষত পেকে পুঁজ যুক্ত হয়ে উঠে।
২। অর্শ হতে রক্তপাত, মুখদিয়ে রক্তউঠা, চক্ষে ছানি।
৩। শীত কাতর, প্রথম চলতে আরম্ভ করলে বৃদ্ধি ও কিছুক্ষণ চলার পর হ্রাস।
৪। নাসিকার অস্থি আক্রান্ত, জরায়ুর স্থানচুতি, গরমে উপশম, নড়াচড়ায় উপশম।
#ক্রিয়াক্ষেত্রঃ ডা.হাসান মির্জা
* তরুনরোগে এই ঔষধটির ব্যবহার নাই। ধীরভাবে তরুণ অবস্থা চলে যাবার পর এই ঔষধটির ক্ষেত্র প্রস্তুত হয়।
* মানসিক লক্ষণ- রোগি সর্বদাই এই আশঙ্কা করে যে তার অর্থক্ষতি ও সর্বনাশ আসন্ন।
* মস্তকের উপর আঘাতজনিত কোন শক্ত অর্বুদ দেখা গেলে বা ছোট শিশুদের মস্তক পাশর্^স্থ অস্থিতে কোন রক্তবর্ণ অর্বুদ সৃষ্টি হলে ঔষধটি অপরিহার্য।
* শিশুর মাথায় রক্তার্বুদ, অবিরত কান্না, মাঝে মাঝে কান্নায় মুখটি নীলবর্ণ ধরণ করে। সিফিলিনাম এবং ক্যাল্কে.ফ্লোর।
* চক্ষুর ছানি রোগে অব্যর্থ। ছানি রোগের প্রথম অবস্থায় যখন পর্দাটি কোমল থাকে তখন নেট্রাম মিউর দিতে হয়, কিন্তু ছানি শক্ত হলে ক্যাল্কে. ফ্লোর উপযোগী। এমনকি চক্ষুপত্রের উপর শক্ত অর্বুদ হলেও এটি দিতে হয়।
* দাঁতের এনামেলের উপর এটি সুন্দর ক্রিয়া করে। তাই দাঁতের গোড়া শিথিল হলে বা দাঁত নড়ে গেলে তা ভালো করে। দাঁতের গোড়ার শক্ত মাংসপিন্ডে ক্যাল্কে. ফ্লোর।
* কানের গোড়ার উপর দিকটা ফুলে শক্ত হলে। আবার পুরাতন কানের পূঁজে নির্দোষভাবে আরোগ্য করবে। কর্ণপত্রে সিস্ট হলে সিফিলিনামের পরে।
* হার্ণিয়া খুব শক্ত হলে বা প্রস্তরবৎ কঠিনতা লক্ষণে ক্যাল্কে. ফ্লোর উপযুক্ত ক্ষেত্র।
* অর্শরোগে ক্যাল্কে. ফ্লোর চমৎকারিত্ব দেখায়। শিরা স্ফীত হয়েই বলি গঠিত হয়। সুতরাং এক্ষেত্রে ক্যাল্কে. ফ্লোর এক নম্বর ঔষধ। পুরাতন অর্শরোগে সিফিলিনাম দিয়ে তারপর ক্যাল্কে. ফ্লোর-২০০ দিন। ইহা আপনাকে হতাশ করবে না।
* স্ত্রীলোকদের ক্ষেত্রে জরায়ুটি কঠিন হয় কিংবা জরায়ু স্থানে টিউমার হলে এবং তা শক্ত প্রস্তরবৎ হলে ক্যাল্কে. ফ্লোর সর্বাগ্রে স্মরণযোগ্য।
* যে কোন শক্ত গ্রন্থিরোগ, প্রস্তরবৎ আব বা টিউমার, কোরন্ড প্রভৃতি রোগের ক্ষেত্রে ক্যাল্কে. ফ্লোর আপনাকে নিশ্চয়তা দেবে।
* প্লিহা বা যকৃত রোগেও যদি শিরাসমূহের বৃদ্ধি বা প্রস্তরের ন্যয় কাঠিন্য লক্ষণটি পাওয়া যায় তৎক্ষণাৎ এই ঔষধটি দিতে হয়।
* যে কোন সর্দি-কাশি বা শ^াসপ্রশ^াস রোগে যদি এমন দেখা যায় যে, সর্দি বা কাশির সঙ্গে শক্ত শক্ত ডেলার ন্যয় পদার্থ বের হয়ে আসছে, তাহলে ক্যাল্কে. ফ্লোর আপনাকে সাহায্য করবে।
* মেরুদন্ডের নির্দিষ্ট একটা অংশের ব্যথায় বা হাড় সংক্রান্ত যে কোন রোগে শেষ কথা বলবে ক্যাল্কে.ফ্লোর।
* হাঁটুর পশ্চাতে উঁচুমত আব বা টিউমার জাতীয় কিছু হলে সিফিলিনাম দিয়ে ক্যাল্কে.ফ্লোর ব্যবস্থা করুন।
* কিডনি বা মূত্রকোষের গোলযোগ জনিত কটি ¯œায়ুশুলে চোখ বন্ধ করে রুটা দিন। তারপর ক্যাল্কে.ফ্লোর।
* লাম্বাগো বা কটি স্নায়ুশুল রোগে সেক্রাম অস্থিতে ব্যথা বেদনায় এটি ব্যবহার করলে কাক্সিক্ষত ফল হয়।
* হস্ত-পদের চর্ম ফাটা ফাটা হলে এবং কঠিন কড়া জাতীয় রোগে একমাত্র অবলম্বন।
* আঙুলের মাথা ব্যথা-যন্ত্রণাপূর্ণ হলে বা নখের চার পাশে খুব ব্যথায় হাইপেরিকাম এবং পরে ক্যাল্কে.ফ্লোর।
* কোন আঘাতের পর যদি বাত হয় তাহলে হাইপেরিকাম, আর্নিকা, রুটা বা ক্যাল্কে.ফ্লোর বিচার করতে হবে। অপারেশনের পর যদি প্রদাহ ব্যথা স্ফীতি থাকে।

#সংকলনে: ডা.এইচ.এম.আলীমুল হক
ডিএইচএমএস (বিএইচবি), কিউএইচসিবি (বিইউবি)
চেম্বার: আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী, মৌচাক, মিজমিজি
সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ।
চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শের জন্য: ১০০টাকা বিকাশ করুন
(বিকাশ পার্সনাল: ০১৯১৬-৫১১ ৩৩৭) তারপর কল করুন
এই নাম্বারে: 01616-511337, 01816-511337