Allium Cepa (এলিয়াম সেপা)

# নিজস্বকথাঃ
১। নাসিকা হতে ক্ষতকর শ্লেষ্মাস্রাব।
২। পেটের মধ্যে অতিরিক্ত বায়ু সঞ্চার ।
৩। কানে কটকটানি, পায়ে ঠান্ডা লেগে কষ্টকর প্রস্রাব ।
৪। অস্ত্রপচারের পর স্নায়ুশূল, প্রসবের পর স্নায়ুশূল।
# মূলকথাঃ
১। সর্দির সাথে নির্জীবতা, নিদ্রালুতা ও একাগ্র মনোযোগে অসুবিধা, বাবার হাঁচি ও ক্ষতকর সর্দিস্রাব, স্রাব লেগে উপরের ঠোঁট ও নাকে প্রদাহ হয়, তার সহিত চোখ দিয়ে পানি ঝড়ে, কিন্তু চোখের পানি ঝাঁঝাল নয়।
২। ব্রংকাই (বায়ুনালী) পর্যন্ত সর্দি বিস্তিৃত হয়ে প্রচুর পরিমাণে কফ নি:সৃত হয়, কাশি ও ঘড়ঘড়ানি থাকে, শুষ্ক কাশির ফলে কণ্ঠনালী ছিঁড়ে যাবে এরূপ অনুভূতি।
৩। স্নায়ুর নানা স্থানে সূতার মতো লম্বা ও সরু ব্যথা।
৪। পেটে বায়ু জন্মে।
উপযোগিতা ঃ
# সর্দি ঃ
* শ্লৈষ্মিক ঝিল্লীর প্রদাহ সহ তরুণ সর্দি, প্রচুর ও পানির মত তরল বা পাতলা সর্দি। নাসাস্রাবে হেজে যায় কিন্তু অশ্রুস্রাবে হেজে যায় না যদিও পরিমাণে প্রচুর (অশ্রুস্রাব প্রচুর, হেজে যায় অথচ নাসাস্রাব হেজে যায় না- ইউফ্রে)। ক্ষতকারী, পানির মত সর্দি, নাকের ডগা দিয়ে ফোঁটা ফোঁটা ঝরতে থাকে (আর্স; আর্স-আয়োড)।
* সর্দির কারণে শিরঃপীড়া ঘিনঘিনে অথচ প্রবল নয়। সেই সাথে তরল সর্দি সন্ধ্যায় বৃদ্ধি, খোলা বাতাসে উপশম, গরম ঘরে বৃদ্ধি (ইউফ্রে, পালস)। শিরঃপীড়া ঋতুস্রাবে হ্রাস; স্রাব বন্ধ হলে ফিরে আসে (ল্যাকে, জিঙ্ক)।
* বসন্তকালের সর্দি, উত্তর-পূর্বদিকের আদ্র/ভেজা বাতাস লেগে সর্দি- স্রাবে জ¦ালা হয় ও নাক ও উপরের ঠোঁট হেজে যায়।
* হে-ফিভার (এলার্জিক) ঃ প্রত্যেক বসন্তকালে যখন শষ্য এবং ফুলের রেণু বাতাসে ওড়ে সেই সময়ের এলার্জিক হে-ফিভার।
* নাকে পলিপাস ঃ বহুতন্তু বিশিষ্ট টিউমার বা অর্বুদ (টিউক্রি, স্যাঙ্গু, সোরিন)। ক্যাল্কে-কার্ব ও সাইলিসিয়ার আগে ভাল জাক দেয়।
* সর্দিজনিত স্বরযন্ত্রের প্রদাহ ঃ কাশির ধমকে কণ্ঠনালী চেপে ধরতে বাধ্য হয়, মনে হয় যেন কাশিতে কণ্ঠনালী ছিড়ে যাবে।
# চোখ ঃ
জ¦ালকর, চোখের ভিতর কামড়ায়, ধোয়াঁ লাগার মত যন্ত্রণা হয়- চোখ ঘষতে বাধ্য হয়, চোখ পানিতে ভরে যায়, ভেজাভাব, চোখের কৈশিকাগুলো () যেন বেরিয়ে আসে, প্রচুর অশ্রুস্রাব হয়।
# শূলবেদনা ঃ
পা ভিজে ঠান্ডা লেগে; অতিভোজনে; শশা বা সালাদ প্রভৃতি খেয়ে; অর্শজনিত এবং শিশুদের শূলবেদনা- বসলে বৃদ্ধি, চলাফেরায় হ্রাস।
# স্নায়ুশূল ঃ
মুখে, মাথায়, গলায়, বুকের উপর- একগাছা লম্বা সূতোয় যতটা জায়গা লাগে ঠিক ততটা জায়গায় স্নায়ুশূল।
# স্নায়ুপ্রদাহ ঃ
আঘাতজনিত ক্রনিক স্নায়ুপ্রদাহ; অঙ্গছেদনের পর কাটা অংশের মূলভাগে স্নায়ুশূল, এতে জ¦ালা ও হুলফোটানো ব্যথা থাকে।
# আঙুলহাড়া ঃ
এতে হাতে লাল ডোরাকাটা দাগ- যন্ত্রণায় অস্থির হতে হয়; প্রসূতাবস্থায় আঙুলহাড়া।
# ঘষা লেগে ঘা ঃ
বিশেষতঃ পায়ের গোড়ালিতে ঘা হয়, হেজে যায়। পায়ে ঘষা লেগে ঘা হলে উপযোগী।
# ফ্লেবাইটিস ঃ
ফরসেপ সাহায্যে প্রসবের পর ফ্লেবাইটিস। অঙ্গপ্রত্যঙ্গে একইভাবে চাপ পড়ে অপরিশোধ্য রক্তবাহী শিরা-উপশিরার প্রদাহ- ফোলে, শক্ত হয়।
# বৃদ্ধি- বিশেষকরে সন্ধ্যায় ও গরম ঘরে (পালস), খোলা বাতাসে (ইউফ্রে)।
# উপশম- ঠান্ডা ঘরে ও খোলা বাতাসে (পালস)।
# সম্বন্ধ ঃ
* সাহায্যকারী ঔষধ- ফস, পালস, থুজা।
* সমগুণ- ইউফ্রেসিয়া অথচ সর্দি ও অশ্রুস্রাব লক্ষণে বিপরীত।
* পরবর্তী- ক্যাল্কে-কার্ব, সাইলিসিয়ার আগে ভাল কাজ দেয়।
* কুফল- পানিতে ভিজার কুফলে প্রযোজ্য (রাসটক্স)।
* শক্তি- ৬, ৩০
সূত্র- এলেন কিনোটস অব মেটিরিয়া মেডিকা