Aethuja Cyn (ইথুজা সাইনাপিয়াম) গুরুত্বপূর্ণ রুব্রিকসহ

১০৪.১। Aethuja Cyn (ইথুজা সাইনাপিয়াম)।
DHMS (1st year).
♣ সমনামঃ গার্ডেন গেমলক, ডগ পয়জন, বোকার শাক, কমননামঃ ফুলস পারসলে(ইউরোপ)।
♣ মায়াজমঃ সাইকোটিক।
♣ কাতরতাঃ গরমকাতর ।
♣ উপযোগিতাঃ গ্রীষ্মকালীন উত্তপ্ত আবহাওয়ায়- শিশুদের দাঁত ওঠার সময় বিশেষভাবে উপযোগী; যেসব শিশু দুধ সহ্য করতে পারে না তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।
♣ ক্রিয়াস্থলঃ মস্তিষ্ক, স্নায়ু, পরিপাকতন্ত্র, অক্ষিপুট, ঘাড়, গ্রন্থি, যকৃত, গ্ল্যান্ড, শিশু, হিক্কা,মিউকাস,মেমব্রেন, চামড়া ।
♣ বৈশিষ্ট্যঃ ইথুজার ক্রিয়ার মূলসুর হচ্ছে প্রচন্ডতা যেমন- ভয়ানক বমি, প্রচণ্ড আক্ষেপ, প্রচণ্ড ব্যথা, ভয়ানক প্রলাপ । অপর পক্ষে এতে রয়েছে অবসাদ ও নিদ্রালুতা । ফুলস পার্সলি এ নামের কোনো সঠিকতা পাওয়া যায়নি তবে এটি “বোকাদের” জন্য একটি মহৎ ওষুধ ।
♣ সারসংক্ষেপঃ শিশু জড়বুদ্ধিসম্পন্ন- মনের অথবা দেহের অত্যধিক দুর্বলতা । প্রচণ্ডতা, অবসন্নতা, নিদ্রালুতা ও দুধ অসহ্য ; বমি, নিদ্রালুতা স্তনপানের পর্যায়শীলতা । পিপাসাহীনতা ও পরিষ্কার জিহ্বা। ভ্রান্ত ধারণা ও বিশ্বাস এবং অদ্ভূত অনুভূতি । অন্ধকারে, দুধ পানে, কফি পানে, বমনের পর, মলত্যাগের পর, গ্রীষ্মকালে বাড়ে । কথোপকথনে, বিশ্রামে, চলাফেরায় কমে।মনোসংযোগ কষ্টকর : উৎকণ্ঠা, অস্হিরতা, উদ্বিঘ্ন, বিষণ্নতা, প্রচণ্ড, ক্রোধ, উত্তেজনাপ্রবণতা, নির্বুদ্ধিতা, আত্মহত্যার প্রবৃত্তি, প্রলাপ । পশুদের প্রতি ভালোবাসা,। দন্তোদ্গমকালীন রোগ, শিশুর খিঁচুনি ।
♣ অদ্ভূত লক্ষণঃ অলীক কিছুর অস্তিত্বে বিশ্বাস।
♣ অনুভূতিঃ ১) বড়রা বলে যে, তার পাকস্থলী উল্টে গেছে, সেই সাথে বুক পর্যন্ত জ্বালাকর অনুভূতি। ২) কক্ষে প্রবেশ করলে মাথা ও মুখমন্ডলের মাঝে ফোলা অনুভূতি।
♣ বৃদ্ধিঃ অন্ধকারে, উষ্ণ আবহাওয়া, দুধ পানে, ভোর ৪টায়, সন্ধাকালে ও বিকেলে, পানাহারের পর, কফিপানে, বমনের পর, মলত্যাগের পর, খিঁচুনির পর, গরমে, গ্রীষ্মকালে, দন্তোদ্গমকালীন।
♣ হ্রাসঃ খোলা বাতাসে, কথোপকথনে, বিশ্রামে, চলাফেরা বা হাঁটলে, সাথী থাকলে।
♣ কারণঃ দন্তোদগম, গ্রীষ্ম আবহাওয়া, দুধ গ্রহণ বা দুধে সৃষ্ট বস্তু, অতিরিক্ত আহার অথবা অতিরিক্ত পড়াশুনাজনিত, অনুপযুক্ত খাদ্য।
♣ শত্রুভাবাপন্নঃ অ্যান্টিম-ক্রুড, সিকুটা।
♣ ক্রিয়ানাশকঃ ওপি, উদ্ভিজ অম্ল।
♣ এটি ক্রিয়ানাশকঃ ওপি।
♣ প্রয়োগঃ ১) শিশুদের উদরাময় এবং বমির তরুণাবস্তায় বমির পরেই ঘুমিয়ে পড়ে। এ অতিমূল্যবান ছোট লক্ষণটি বহু জীবন রক্ষা করেছে। — ডাঃ সি.ভি.এস. কোরিয়া।
২) শিশুদের ও অনেক সময় বয়স্কদের মানসিক যন্ত্রণার আতিশয্য ও কান্না এ ওষুধটির একটি বিশিষ্ট লক্ষণ– রোগ যতো বাড়তে থাকে রোগী ততো নির্জনপ্রিয় ও কান্নাপরায়ণ হয়।— ডাঃ গ্যারেন্সি।
♣♣ উপরোক্ত লক্ষণ সাদৃশ্যে যে কোন রোগেই আমরা ইথুজা প্রয়োগ করতে পারবো।
গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি রুব্রিকঃ
১) মনোসংযোগ(Concentration): ক)মনোসংযোগ(Concentration) : কষ্টকর শিশুদের- ইথু,ব্যারা-কা।
খ) মনোসংযোগ মনোসংযোগ: বিদ্যাভ্যাস, পঠন প্রভৃতিকালে- A=নাক্স-ভ। B=ইথু, অ্যাগ্নাস, ব্যারা-কা, ড্রসে, । C= অ্যাকোন, অ্যালু, অ্যাসের, ব্যারা-মি, বেল, কার্বো-সাল, কস্টি, ক্যামো, কফি, কর্না, ফ্যাগু, হেলি, ক্যালি-কা, ল্যাকে, ন্যাট্র-কা, অক্স্যা-অ্যাসি, স্পাইজে, সালফ, ।
২) অন্ধকারে বৃদ্ধি (Darkness)-A=স্ট্র্যামো । B=ইথু, ক্যাল্ক, কার্বে-অ্যানি, কার্বো-ভে, কস্টি, লাইকো, ফস, পালস, ভ্যালের,।
৩.১) প্রলাপ (Delirium) -নির্বোধ, বোকাভাব- B= ওপি, স্ট্র্যামো। C=অ্যাকোন, ইথু, বেল, হায়োস, মার্ক।
৩.২) প্রলাপ (Delirium) -উন্মত্তের মতো- A=বেল, হায়োস, স্ট্র্যামো । B=ইথু, ক্যাম্ফ, ক্যান্হা, কফি, কুপ্রা, হেলি, ওনান, ওপি, সিকেলি, ভিরেট।
৩.৩) প্রলাপ (Delirium) -ক্রোধোন্মত্ত, গর্জনশীল- A=অ্যাগারি, বেল, ক্যান্হা হায়োস, লাইকো, নাই-অ্যাসি,ওপি, স্ট্র্যামো ভিরেট B=অ্যাকোন, অ্যাকটি-স্পি, ইথু, অ্যান্টি-টা, ক্যাম্ফ, কার্বো-সার, সিমিসি, কুপ্রা, হেলি, মার্ক, প্লাম্বা, পালস, সোলে-না, ট্যাবে ।
৪) ভ্রান্ত বিশ্বাস (Delusions) ঃ
ক) ভ্রান্ত বিশ্বাস (Delusions): জীবজন্তু সম্বন্ধে ইঁদুর, নেংটি ইঁদুর, পোকা প্রভৃতি- B= ইথু,সিমিসি মেডো। C=বেল, স্ট্র্যামো ।
খ) ভ্রান্ত বিশ্বাস (Delusions): বিড়াল দেখে- ইথু, বেল, ক্যাল্ক, স্ট্র্যামো,। অ্যাপ্সি, আর্নি, ড্যাফ, হায়োস, পালস।
গ) ভ্রান্ত বিশ্বাস (Delusions): কুকুর দেখে- B=বেল,। B=ইথু, ক্যাল্ক, স্ট্র্যামো । C=আর্নি, লাইকো, মার্ক, পালস, সাইলি, সালফ, ভিরেট, জিঙ্ক।
ঘ) ভ্রান্ত বিশ্বাস (Delusions): মহৎ ব্যক্তি, সে নিজে-B = অ্যাগারি, ক্যানা-ই, প্লাটি। C=ইথু, বেল, কুপ্রা, লাইসি, ফস, সালফ, ভিরেট।
ঙ) ভ্রান্ত বিশ্বাস (Delusions):বড়ো ইঁদুর দেখে ঘরের মাঝে দৌড়াচ্ছে- B=ইথু,। C= অ্যাইল্যাণ্হ, সিমিসি, মেডা।
৫) নির্বুদ্ধিতা( Idiocy)ঃ B= ইথু, ব্যারা-কা, ব্যারা-কা, ক্যাল্ক-ফস, হেলি, ফস। C- অ্যাগারি, অ্যানাকা, অ্যানান্থে, অ্যান্টিম-ক্রুড, বেল, বিউফো, ক্যাপসি, কার্বো-সাল, ক্যামো, হায়োস, মার্ক, নাক্স-ম, প্লাম্বা, সার্সা, ট্যাবে, টিউবার।
৬) অজ্ঞানতাঃ(Unconsciousness)- একদৃষ্টে তাকানোর সাথে – B- কষ্টি। C- ইথু, আর্স, বোভি, ক্যাম্ফ, ক্যান্থা, কুপ্রা, স্ট্র্যামো।
৭) কাঁদেঃ ( Weeping) ঃ মলত্যাগের সময়- B- ইথু, বোরা, ক্যামো। C- সিনা, ফস, রাস, সাইলি, সালফ।
৮) খাদ্য (Food) দুধ পানে বাড়ে- A- ইথু, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-সাল, চায়না, কোনি, ল্যাক-ডি, নাই-অ্যাসিড, সিপি, সালফ। B- অ্যালু অ্যাম্ব্রা, অ্যান্টি-ক্রু, অ্যান্টি-টা, আর্জ-মে, আর্স, ব্রায়ো, কার্বো-ভে, ক্যামো, চেলিডো, সাইকু, কুপ্রা, আইরি, ক্যালি-কা, ক্যালি-আই, লাইকো, ম্যাগ-কা,ন্যাট্র-মি,ন্যাট্র-ফস, নাক্স-ভ, ফস, সোরিন, পালস, জিন্ক।
৯) গ্রীষ্মকালে( Summer, in)- A- ফ্লু-অ্যাসি, ক্যালি-বাই। B- ইথু, অ্যালু, বেল, ব্রায়ো, কার্বো-ভে, গুয়াই, আই, ল্যাকে, ন্যাট্র-কা, ন্যাট্র-মি, নাক্স-ভ, সোরিন, পালস, সেলে।
১০) দুর্বলতা(Weakness)/ক্লান্তিঃ মলত্যাগের পরে- A- আর্স, আর্স-মে, কোনি, মার্ক, নাই-অ্যাসি, পিক্রি-অ্যাসি, ভিরেট। B- ইথু, অ্যালু, ক্যাল্ক, কার্বো-সাল, কার্বো-ভে, ডালকা, গ্রাফ, আই, ল্যাকে, লাইকো, নাক্স-ভ, পেট্রো, ফস, সিপি,সালফ।
#সংকলনে: ডা.এইচ.এম.আলীমুল হক
ডিএইচএমএস (বিএইচবি), কিউএইচসিবি (বিইউবি)
চেম্বার: আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী, মৌচাক, মিজমিজি
সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ।
চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শের জন্য ১০০টাকা বিকাশ করুন এই নাম্বারে ০১৯১৬-৫১১ ৩৩৭ (পার্সনাল)। তারপর কল করুন এই নাম্বারে: 01816-511337 (সকাল ৯.৩০ থেকে রাত ৯.৩০ পর্যন্ত নামাজের সময় ছাড়া)