Acid Fluor (অ্যাসিডাম ফ্লুওরিকাম):গুরুত্বপূর্ণ রুব্রিকসহ

৫২.১। Acid Fluor (অ্যাসিডাম ফ্লুওরিকাম)।
DHMS (4th year).
♣ সমনামঃ ফ্লোরিক অ্যাসিড, হাইড্রোফ্লোরিক অ্যাসিড।
♣ মায়াজমঃ সোরিক, সাইকোটিক, সিফিলিটিক, টিউবারকুলার।
♣ কাতরতাঃ গরমকাতর।
♣ উপযোগিতাঃ যাদের কার্যাবলী মানসিক ও শারীরিক ভাবে অতিমাত্রায় নিম্নগামী এবং কখনো অত্যানুভূতিযুক্ত আবার কখনো প্রতিক্রিয়াশীলতার অভাব এবং যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করতে পারে, গ্রীষ্মে বা শীতে একটুও কাতর হয় না তাদের পীড়ায় উপযোগী।
♣ ক্রিয়াস্থলঃ ফাইব্রোয়াস টিস্যুগুলো, শিরা ও চামড়া, অস্থি, শ্লৈষ্মিকঝিল্লি, রক্ত, গ্ল্যান্ড, ম্যাসটয়েড, চুল, নখ, দাঁত, চোখ, উপাস্থি।
♣ বৈশিষ্ট্যঃ এ ওষুধে সোরিক, সিফিলিটিক, সাইকোটিক এ তিনটি দোষই বর্তমান রয়েছে তবুও সিফিলিস পারদ সংমিলিত দোষই বিশেষ ফলপ্রসু, অন্যগুলো ধ্বংসপথে সাহায্য করে থাকে। ধ্বংসমুখী গতিটি ধীর, অতি ধীর – ধ্বংসপথটি কখন আরম্ভ হয় বা হয়েছে কেউই জানে না।
♣ সারসংক্ষেপঃ কী মনে কী দেহে এর কার্যাবলী অতিমাত্রায় নিম্নগামী। স্রাব অত্যন্ত ক্ষতকর ও দুর্গন্ধযুক্ত। গরমকাতর, উত্তাপের অনুভূতি ও জ্বালা।
শত্তি/ত্যাজ বাড়ার অনুভূতি। ঠান্ডায়, ঠান্ডা পানিতে, মুক্ত বাতাসে ও নড়াচড়ায় উপশম। গরমে, রাতে, দাঁড়ালে, চা ও কফি পানে বাড়ে। আনন্দিত, ঔদাসীনতা, স্মৃতিশক্তির দুর্বলতা, অত্যানুভূতিযুক্ত, গোলমালে বিরক্তি জন্মে। অস্থিক্ষত, শীর্ণতা, অস্থিবাড়ে, সঙ্গমেচ্ছার প্রাবল্য। প্রস্রাব বাধাপ্রাপ্ত হলেই মাথাব্যথা।
♣ অদ্ভূত লক্ষণঃ অত্যাধিক ব্যায়াম করলে ও তার মাংসপেশিতে দুর্বলতা আসে না ।
♣ অনুভূতিঃ ১) চোখের পাতার মাঝ দিয়ে ঠাণ্ডা বাতাস প্রবাহিত হবার অনুভূতি, এমন কি গরম ঘরের মাঝেও ; যেনো বাতাস কাঁধের সন্ধির মাঝ দিয়ে আঙুলের সন্ধির দিকে প্রবাহিত।
২) মনে হয় যেনো শরীরের ওপরিভাগ হতে একটি তাপের ঝলকা ওঠছে – অনুভূতিতেও তাপ অনুভব হয়।
♣ ইচ্ছাঃ শীতল পানীয়, ঝাল ও মসলাযুক্ত খাদ্য, পুনঃ পুনঃ গোসল, ঠাণ্ডা চায়ই।
♣ বৃদ্ধিঃ গরমে, গরম ঘরে, গরম খাদ্যে বা পানীয়ে, কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে, অম্ল খাদ্যে, সাকলে, সন্ধাকালে/রাতে, বিশ্রামে, দাড়ালে, বসলে, মদপানে, চা ও কফিপানে, । গ্রীষ্মকালে, আলাপ- আলোচনায় বৃদ্ধি ।
♣ হ্রাসঃ ঠাণ্ডায়, ঠাণ্ডা পানিতে গোসলে, ঠাণ্ডা ও মুক্ত বাতাসে, দ্রুত সঞ্চালনে, সামান্য ঘুমে, আহারে, মাথা পেছন দিকে বাঁকালে, ঘুরে বেড়ালে, কাপড় এঁটে পরলে, নড়াচড়ায় ।
♣ কারণঃ সিফিলিস, সাইকোসিস, অথবা মার্কারীর অপব্যবহারে, মদপানে, গনোরিয়া ।
♣ ক্রিয়ানাশকঃ ক্যাম্ফর কফি, কলো, কেলি-কা, ওপি, সাইলি ।
প্রয়োগঃ
♣ আমি এটি ৩x এবং ৬x শক্তিতে দারুণ ফল পেয়েছি । -ডাঃ ফার্টিয়াল ফের্নোভিল ।
♣ চোখের ছানিতে- থিওসিনামিনাম ও ক্যাল্ক-ফ্লোর ব্যবহার করে দেখবেন। – ডাঃ এন.সি.ঘোস।
উপরোক্ত লক্ষণ সাদৃশ্য যে কোন রোগেই আমরা অ্যাসিডাম ফ্লুওরিকাম (অ্যাসিড-ফ্লু) প্রয়োগ করতে পারবো।
গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি রুব্রিকঃ
১) বিরূপভাব (Aversion) : পরিবারের লোকদের প্রতি – A-সিপি। B-ক্যাল্ক, ক্রোটেল, ফ্ল-অ্যাসি, ন্যাট্র-কা।
২) ঘৃণা (Hatred) : অনুপস্থিত ব্যক্তির ওপর, তাকে দেখলে উপশম- ফ্লু-অ্যাসি ।
৩) ঔদাসীনতা (Indifference) : বিষয় কর্মে-ঃ আর্জ-নাই, ফ্ল-অ্যাসি, ক্যালি-বাই, ফস-অ্যাসি, পালস, সিপি, স্ট্র্যামো, সালফ ।
৪) স্ত্রীদের কামোন্মাদ (Nymphomania) A= গ্র্যাটিও, হায়োস, ল্যাকে, । B=অ্যান্টি-ক্রু অ্যাপিস, ব্যারা-মি, বেল, ক্যাল্ক-ফস, ক্যানা-ই, ক্যানা-স্যাট, ক্যান্হা, সিড্রন, চায়না, কফি, ডিজি, ডালকা, ফ্ল-অ্যাসি, ক্যালি-ব্রো, লিলি-টি, লাইকো, মার্ক, মিউরে, নাক্স-ভ ওপি, ফস, পালস, স্যাবাডি, স্ট্যাফি, ট্যারেন্টু, ভিরেট, জিঙ্ক ।
৫) খোলা বাতাসে (Open air) :অাকাঙ্ক্ষা- A=অরাম, অরাম-মি, ক্যাল্ক-আই, কার্বো-ভে, ক্রোকা, আই, ক্যালি-আই, ক্যালি-সাল, লাইকো, পালস, সালফ, । B=অ্যাগ্নাস, অ্যালু, অ্যান্টি-ক্রু, অ্যাপিস, আর্জ-নাই, আর্নি, আর্স, আর্স-আই, অ্যাসাফ, ব্যারা-কা, বোরা, ব্রোমি, ব্রায়ো, ক্যালি-সাল, ফ্লু-অ্যাসি,গ্র্যাফ, হেলি, ল্যাকে, লিলি-টা, ম্যাগ-মি, মেজের, ন্যাট্র-মি, ন্যাট্র-সাল, প্ল্যাটি, স্যানিকি, সিকেলি, স্পাইজে, স্ট্র্যামো, টেলু, টিউক্রি ।
৬) খোলা বাতাসে উপশম- A=অ্যালু, আর্জ-নাই, আর্স, ক্যানা-ই, আই, ক্যালি-আই, ম্যাগ-কা, ম্যাগ-মি, ন্যাট্র-সাল, পালস, রাস, স্যাবাডি, স্যাবি । B=অ্যাকো, অ্যাগ্নাস, অ্যালি-স্যা, অ্যালো, অ্যামন-মি, অ্যামিল-নাই, অ্যান্টি-ক্রু, অ্যাপিস, অ্যাসাফ, অ্যাসের, অ্যাট্রো, অরাম, বোভি, ব্রায়ো, ক্যাক্টা, ক্যালাডি, ক্যাল্ক-সাল, ক্যাম্ফ, কার্বো-সাল, কার্বো-ভে, চেলিডো, কফি, কোনি, ডিজি, ডায়োস্কো, ফ্লু-অ্যাসি, গ্যাম্বো, গ্র্যাফ, হেলি, হায়োস, ইপি, ক্যালি-বাই, ক্যালি-নাই, ক্যালি-সাল, ল্যাকে, লাইকো, মেজের, ন্যাট্র-মি, ফস, ফাইটো, প্ল্যাটি, সিকেলি, সেনেগা, সিপি, স্পঞ্জি, সালফ, টেলু, জিঙ্ক ।
৭) ঠাণ্ডা পানিতে গোসলে উপশম- আর্জ-নাই, আর্নি, অরাম-মি, ক্যাল্ক-কা, ফ্লু-অ্যাসি, ন্যাট্র-মি। অ্যাসের, বিসমা, ইন্ডি, আই, ম্যাফাই।
৮) অস্হিক্ষত (Caries of bone) -A=অ্যাঙ্গুস্টু, অ্যাসাফ, ফ্লু-অ্যাসি, ক্যালি-আই, লাইকো, মার্ক, সাইলি, থেরেডি। B= আর্স, অরাম, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-ফ্লু, সিস্টা, কুপ্রা, গুয়াই, হিপার, আই, মেজের, নাই-অ্যাসি, ফস-অ্যাসি, ফস, পালস, স্ট্যাফি থুজা।
৯) উত্তাপের অনুভুতি (Heat) -A= অ্যাপিস, ক্যাল্ক-সাল, ক্যানা-স্যাট, কোক্কাস, কফি, ফ্লু-অ্যাসি, আই, ক্যাল-সাল, লিলি-টি, লাইকো, ন্যাট্র-মি, ন্যাট্র-সাল, পালস, সিকেলি, সালফ, সাল-অ্যাসি, সাল-আই । B=অ্যালু, আর্জ-নাই, অরাম, ব্যারা-কা, ক্যাল্ক, ক্যাম্ফ, ড্রসে, ইপি, ল্যাকে, মার্ক নাক্স-ভ, ফস, সোরিন, স্যাবাডি, স্যাবি, সেনেগা, স্পঞ্জি, স্ট্যাফি, ভিরেট, জিঙ্ক ।
১০) প্রদাহ : হাড়গুলোতে – A=ক্লিমে, ফ্লু-অ্যাসি, মার্ক, মেজের, ফস-অ্যাসি, পালস, সিপি, সাইলি, স্ট্যাফি, । B=অ্যাকোন, অ্যাসাফ, অরাম-মি, বেল, ক্যাল্ক, ল্যাক্টি-অ্যাসি, লাইকো, নাই-অ্যাসি, ফস, সোরিন ।
১১) প্রদাহ :অস্হিবেষ্টে- A= ফ্লু-অ্যাসি, মেজের, ফস-অ্যাসি । B=অ্যাপিস, আর্স, অ্যাসাফ, ক্যালি-আই, ম্যাঙ্গে, মার্ক, নাই-অ্যাসি, সোরিন, রুটা, সাইলি ।
১২) ব্যথা অ্যাগুনের, ঝলকের মতো- A=অ্যাগারি, হিপার, নাই-অ্যাসি । অ্যালু, আর্জ-নাই, ব্যারা-কা, ডলি, ফ্লু-অ্যাসি, সাইলি, । C=ইস্কু, কার্বো-ভে, সাইকু, কলচি, কলিন, পেট্রো, প্ল্যাটি, সালফ ,
১৩) প্রতিক্রিয়াহীনতার অভাব (Reaction lack of) -A= অ্যাম্ব্রা, অ্যামন-কা, ক্যাল্ক, ক্যাপসি, কার্বো-ভে, কস্টি, ক্যামো, কোনি, জেলস, হেলি, হাইড্রো-অ্যাসি, মেডো, ওলিয়ে, ওপি, ফস-অ্যাসি, সোরিন, সালফ । B= অ্যালু, অ্যানাকা, আর্স, ব্যারা-কা, ক্যাল্ক-আই, ক্যাল্ক-সাল, ক্যাম্ফ, কার্বে-অ্যানি, ক্যাস্ট, চায়না, ককুল, কুপ্রা, ডালকা, ফেরাম, ফ্লু-অ্যাসি, গ্র্যাফ, ইপি, ক্যালি-কা, ক্যালি-সাল, ল্যাকে, লাইকো, মার্ক, ফস, প্লাম্বা, সিকেলি, সেনেগা, সিপি, স্ট্যানা, স্ট্র্যামো, সিফিলি, থুজা, ভিরেট ।
১৪) শক্তি/ত্যাজ বাড়ার অনুভুতি (Strength, sensation of) – B= অ্যাগারি, বিউফো, কফি, ফ্লু-অ্যাসি । C= ওপি, স্ট্র্যামো ।
১৫) গ্রীষ্মকালে (Summer, in) -A= ফ্লু-অ্যাসি, ক্যালি-বাই,। B= ইথু, অ্যালু, বেল, ব্রায়ো, কার্বো-সাল, কার্বো-ভে, আই, ল্যাকে, ন্যাট্র-কা, ন্যাট্র-মি, নাক্স-ভ, সোরিন, পালস, সেলে, । C= আর্স-আই, আর্জ-নাই, ব্যারা-কা, বোরা, ক্যামো, গ্র্যাফ, লাইকো, থুজা
১৬) শিরাস্ফীতি/ শিরাকুঁচকে থাকা (Varicose veins) – A= আর্নি, কার্বো-ভে, ফ্লু-অ্যাসি, হ্যামামে, লাইকোপা, পালস । B=অ্যালুমেন, অ্যান্টি-টা, আর্জ-নাই, বেল, কার্বে-অ্যানি, কস্টি, ফেরাম, গ্র্যাফ, হিপার, ক্রিয়ো, লাইকো, ন্যাট্র-মি, নাক্স-ভ, প্লাম্বা, স্যাবি, সাইলি, সালফ, জিঙ্ক, । C=আর্স ক্যাল্ক ফে, ক্যাল্ক-ফস, ক্লিমে, কলো, ল্যাকে, ম্যাগ-কা, সিপি, সাইলি, সাল-অ্যাসি, থুজা ।
১৭) লিঙ্গোচ্ছ্বাস (Erection) কষ্টকর – A= ক্যান্হা, নাক্স-ভ, ফস, পিক্রি-অ্যাসি, প্ল্যাটি। B=অ্যামন-কা, অরাম, ক্যানা-ই, ইউফর্বি, ফ্লু-অ্যাসি, আই, ক্যালি-কা, ক্যালি-আই, ক্রিয়ো, ন্যাট্র-কা, ন্যাট্র-মি, ওপি, ফস-অ্যাসি, সিপি, সাইলি, স্ট্য
১৮) লিঙ্গোচ্ছ্বাস : রাতে- A= অরাম, ক্যান্হা, ফ্লু-অ্যাসি, নাই-অ্যাসি, ফস, পিক্রি-অ্যাসি, প্ল্যাটি । B= ক্যাপসি, কস্টি, ডায়োস্কো, ক্যালি-ব্রো, ল্যাকে, মার্ক, ন্যাট্র-কা, ওপি, সাইলি ।
১৯) লিঙ্গোচ্ছ্বাস : অত্যধিক- A=ক্যান্হা, ফ্লু-অ্যাসি, । B=অরাম-মি, গ্র্যাফ, ফস-অ্যাসি, পিক্রি-অ্যাসি,। C=কোপেই, ন্যাট্র-মি, ওপি, স্ট্যাফি।
২০) লিঙ্গোচ্ছ্বাস : দৃঢ়- A=ক্যান্হা, ফ্লু-অ্যাসি, ফস, পিক্রি-অ্যাসি, । B=গ্র্যাফ, ল্যাকে, পালস, ।
২১) লিঙ্গোচ্ছ্বাস :প্রচণ্ড- ফ্লু-অ্যাসি, ফস, পিক্রি-অ্যাসি, প্ল্যাটি । B=অ্যালু, অ্যানান্হে, ক্যান্হা, ক্যামো, ক্লিমে, জেলস, গ্র্যাফ, ক্যালি-আর্স, ক্যালি-ক্লোর, মার্ক-কর, মেজের, মাইগে, ন্যাট্র-কা, নাই-অ্যাসি, ওপি, প্লাম্বা, সাইলি, স্ট্র্যামো,
#সংকলনে: ডা.এইচ.এম.আলীমুল হক
ডিএইচএমএস (বিএইচবি), কিউএইচসিবি (বিইউবি)
চেম্বার: আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী, মৌচাক, মিজমিজি
সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ।
চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শের জন্য: ১০০টাকা বিকাশ করুন
(বিকাশ পার্সনাল: ০১৯১৬-৫১১ ৩৩৭) তারপর কল করুন
এই নাম্বারে: 01616-511337, 01816-511337