(38) Staphysagria (স্ট্যাফিসেগ্রিয়া)

♣ সমনামঃ ডেলফিনিয়াম স্ট্যাফিসেগ্রিয়া, স্ট্যাফিডিস এগ্রিয়া, লাউস সীডস, লার্কস্পার।
♣ মায়াজমঃ সোরিক, সাইকোটিক, সিফিলিটিক, টিউবারকুলার।
♣ সাইডঃ ডানদিক।
♣ কাতরতাঃ উভয়কাতর।
♣ উপযোগিতাঃ হস্তমৈথুন ও অতিরিক্ত যৌনাচারহেতু মানসিক বিশৃঙ্খলায় উপযোগী। সামান্যতম আঘাতে, সামন্য ব্যাপারে অসহিষ্ণু উত্তেজিত হয়ে পড়ে, তুচ্ছ নির্দোষ কথাতেও অপমানিত বোধ করে ( ইগ্নে), ক্রোধ, বিরক্তি বা দীর্ঘদিনের অসন্তোষ জমা হয়ে ( অরাম-মেট) তার কুফলে রোগ হলে উপযোগী।
তীক্ষ্ণ ধারালো অস্ত্রে কেটে গেলে, অস্ত্র দ্বারা অপারেশনের পর হুল ফোটানো ব্যথা, ছুরি দিয়ে কেটে ফেলার মতো তীক্ষ্ণ বেদনা হলে উপযোগী।
♣ ক্রিয়াস্থলঃ মন, প্রস্টেটগ্ল্যান্ড, স্নায়ু, দাঁত, জননাঙ্গগুলো, মূত্রযন্ত্র, পাকাশয়, চোখ, চামড়া।
♣ বৈশিষ্ট্যঃ দাঁত ও দন্তস্থলী আবরণের ওপর কাজ করে। তন্তুগুলো ছিন্নভিন্ন হলে ব্যবহার্য। সঙ্কোচক পেশিগলো ছিন্ন বা প্রসারিত।
♣ সারসংক্ষেপঃ অতিরিক্ত রতিজ দুরাচার, অপমানিত বোধ, ক্রোধ, দীর্ঘদিনের অসন্তোষ জমা হওয়ার কুফল। রাগের পর হতে গলগহ্বরে সংকোচন বোধ হয়। দিবাভাগে, দৈহিক ও মানসিক পরিশ্রমে, উপবাসকালে, তামাকে প্রকোপ, স্পর্শে, জৈব তরল পদার্থের ক্ষয়ে, ঘৃণায়, রুটি ও মসলাদার খাদ্যে বাড়ে।
গোসলে, বিশ্রামে, উত্তাপে, নাস্তা খেলে, পূর্ণিমার আগে ও অমাবস্যার সময় কমে। অস্হিরতা, স্নায়বিকতা, ক্রোধ: বিরক্তি ও ঘৃণাভাবসহ, উত্তেজনাপ্রবণতা, অত্যানুভূতিযুক্ত, কামুকতা, অলসভাব, ঔদাসীনতা ও স্মৃতিশক্তির দুর্বলতা। মলদ্বারের অত্যন্ত স্পর্শকাতরতাযুক্ত শ্লেষ্মাগুটি। নব বিবাহিত মহিলার মূত্রবেগ সংক্রান্ত সমস্যা। চোখের অঞ্জলি ও দাঁতের পোকা। কোনো অস্ত্রোপচারের কুফল।
♣ বিশেষ লক্ষণঃ ১) ঘৃণামিশ্রিত রাগের সাথে মনোকষ্ট হতে রোগোৎপত্তি।
২) যার প্রতি উত্তেজিত হয় তার প্রতি জিনিস-পত্র ছুঁড়ে মারে।
♣ অনুভূতিঃ ১) উত্তাপের অনুভূতি।
২) ভারবোধ: বাহ্যিকভাবে, অভ্যন্তরীণভাবে।
♣ ক্রম ও সহচর লক্ষণঃ ১) অতিরিক্ত যৌনকাজের পর স্বল্পবাক বা চোখ লাল হয়ে যায় বা চোখে ঝাপসা দেখে বা অন্ডকোষের শীর্ণতা প্রাপ্তি। ২) শিশুরা ঘুম থেকে জেগে পালিয়ে যেতে চায়।

= উপরোক্ত লক্ষণ সাদৃশ্যে যে কোন রোগেই আমরা স্ট্যাফিসেগ্রিয়া প্রয়োগ করতে পারবো।