Ledum pal (লিডাম পল): গুরুত্বপূর্ণ রুব্রিকসহ

৭০। লিডাম পালাস্ট্রি (Ledum pal )।
D.H.M.S. ( 2nd year).
♣ সমনামঃ মার্শটি, ওয়াইল্ড রোজমেরি।
♣ মায়াজমঃ সোরিক, টিউবারকুলার, সিফিলিটিক।
♣ সাইডঃ ডানপাশ, বামপাশ, ওপরে বামপাশ নিচে ডানপাশ।
♣ কাতরতাঃ গরমকাতর।
♣ উপযোগিতাঃ জৈব উত্তাপের অভাব। বাত ও গিটবাতজনিত অসুখে ভোগে, মদ খেয়ে স্বাস্থ্য বিকৃতি হয়েছে এমন লোকদের পক্ষে উপযোগী। চোখের তারায় অপারেশনের (ছানি কাটা) পর চোখের ভেতর সামনের প্রকোষ্টে রক্তস্রাব হয়ে রক্ত জমা হলে উপযোগী। যাদের দেহ সর্বদা ঠান্ডা, যারা সর্বদা ঠান্ডা বা শীত অনুভব করে, জৈব উত্তাপের অভাব যাদের (সিপি, সাইলি) তাদের ক্ষেত্রে উপযোগী।
♣ ক্রিয়াস্থলঃ ফাইব্রোয়াস টিসু, ছোট সন্ধি, টেনডনগুলো, চোখ, গোড়ালি, হাঁটু, সূক্ষ্ম শ্বাসনালি, রক্ত সঞ্চালন, চামড়া, ফুসফুস, পেরিওস্টিয়াম, রক্ত, নার্ভাস, মস্তিক, অস্হি ।
♣ বৈশিষ্ট্যঃ হ্যানিম্যান তাঁর লিডাম প্রুভিং এর ভূমিকায় বলেন, ” এটি ক্রোনিক রোগের ক্ষেত্রে উপযোগী যেখানে রয়েছে শীতলভাব প্রাধান্য ও জৈবিক উত্তাপের অভাব”। টেস্টি, যিনি লিডামের ক্লিনিক্যাল অথরিটির মাঝে প্রধান উল্লেখ করেন যে, উত্তর ইউরোপের আর্দ্র অঞ্চলের আদিবাসী এবং ছাগল ছাড়া অন্য কোনো প্রাণী এটি খায় না, কারণ হলো এর পাতায় একটা শক্তিশালী রেসিনজাতীয় ঘ্রাণ আছে, যা ” উকুনকে দূরে রাখে এবং ময়দাতে ছত্রাক পড়তে বাধা দেয়”।
♣ ফিজিওলজিক্যাল কাজঃ ১) শ্বাস-প্রশ্বাসে কষ্ট উৎপন্ন করে। ২) গলদেশের সর্বত্র তীরবেঁধামতো যন্ত্রণা বোধ হয়। ৩) ভীষণ চুলকানি প্রকাশ পায়। ৪) কাশির সাথে উজ্জ্বল রক্ত ওঠে। ৫) সন্ধিস্থলগুলো বিশেষতঃ পা দুটোর বুড়ো আঙুলের প্রদাহ এবং ফোলা। ৬) যন্ত্রণা সন্ধ্যার সময় বাড়ে এবং সরে বেড়ায়।
♣ সারসংক্ষেপঃ জৈব উত্তাপের অভাব। রোগী গরম কাতর অথচ সর্বদা শীত শীত ও ঠান্ডাবোধ করে। বাত ও গিটবাতজনিত অসুখে ভোগে। মধ্য রাতের আগে, আক্রান্ত অঙ্গের সঞ্চালনে, হাঁটলে, গরমে, উষ্ণতায় ও স্পর্শে বাড়ে। গোসলে, ঠান্ডায়, বিশ্রামে, স্থির হয়ে থাকলে ও পায়ের পাতা বরফ ঠান্ডা জলে রাখলে কমে। খিটখিটে, উৎকন্ঠা ও ভীরুতা, উত্তেজনাপ্রবণতা, প্রতিহিংসা পরায়ণ, রাগ ও ক্ষিপ্তাবস্থা, বিষণ্নচিত্ত ও বিরূপভাবাপন্ন। আঘাতপ্রাপ্ত অংশের শীতলতা। নিম্নাঙ্গে রোগাক্রমণ বা প্রথম নিম্নাঙ্গ, পরে উর্ধাঙ্গ। শোথ। স্নায়ুকেন্দ্রে আঘাত। ক্ষত: বিষাক্ত জন্ত্তর দংশন, ছুঁচালো মুখবিশিষ্ট কোনো কিছুতে বিঁধে, হাতের তালু ও পায়ের তলায়
♣ অনুভূতিঃ ১) নিতম্বে বুদ বুদ ওঠার অনুভূতি । ২) আড়াআড়িভাবে অনুভূতি। ৩) রোগী গরম কাতর অথচ সর্বদা শীত শীত ও ঠান্ডাবোধ করে।
♣ ক্রম ও সহচর লক্ষণঃ ১) আথ্রাইটিস নোডোসাইটিসে নড়াচড়া করার সময় চিমটি মারা অনুভূতি ও কটকট শব্দ । ২) আড়ষ্টতার সাথে হাত-পায়ে বাতজ ব্যথা ঠান্ডায় উপশম। ৩) ডান নিতম্বে ও বাম কাঁধে বাতজ ব্যথা।
♣ < বৃদ্ধিঃ অপরাহ্নে, সন্ধাকালে, রাতে, মধ্য রাতের আগে, সাধারণভাবে ঠান্ডায়, মাথায় ঠান্ডা লাগালে, দ্রুত আহারে, পালকের শয্যায়, সঞ্চালনে, আক্রান্ত অঙ্গের সঞ্চালনে, রাতের আগমনে, ঘর্ষণে, দৌড়ালে, বসাবস্হায়, স্শর্শে, হাঁটলে, গরমে, উষ্ণতায় ।
♣ > হ্রাসঃ গোসলে, শুয়ে থাকলে, নিচে বসতে গেলে, দাঁড়ালে, ঠান্ডায়, বিশ্রামে, বিছনার বাইরে।
♣ কারণঃ অ্যালকোহলের কুফল, আঘাত, ইঁদুর এর কামড়, চুল কাটলে, স্রাব অবরুদ্ধে, তরুণ ও পুরাতন আঘাত, কাঁটা-পেরেক বিদ্ধ হওয়া, সূঁচালো দ্রব্য বিঁধে যাওয়া, হুল ফোটানো।
♣ ক্রিয়ানাশকঃ ক্যাম্ফ, কফি, ইপি, ওপি, রাস।
♣ শত্রুভাবাপন্নঃ চায়না।
♣ প্রয়োগঃ কাঁটা বা পেরেক বিদ্ধজনিত অথবা ছিন্নক্ষতে তাড়াহুড়ো করে অ্যান্টি টিটেনিক সিরামের দিকে ধাবিত হয়ো না। কয়েকমাত্রা লিডাম -পল দাও, তাহলে তোমার উদ্বেগের কারণ থাকবে না। — ডা. হ্যান্ডারসন।
= উপরোক্ত লক্ষণ সাদৃশ্যে যে কোন রোগেই আমরা লিডাম প্রয়োগ করতে পারবো।

গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি রুব্রিকঃ (ক্যান্ট রেপার্টরী অনুযায়ী)
১) ক্রোধ (Anger) ঃ-খিটখিটে ভাব- অ্যাকোন, অ্যানাকা,আর্স, অরাম, ব্রায়ো, ক্যামো, ইগ্নে ক্যালি-কা,ক্যালি-সাল, লাইকো, ন্যাট্র-মি, নাই-অ্যামি,নাক্স-ভ, পেট্রো,সিপি,স্ট্যাফি, সালফ।
B= অ্যাপিস, আর্স-আই, বেল, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-ফস, ক্যাল্ক-সাল, ক্যাপসি, কার্বো-অ্যানি, লিডাম,,,,
২) বিরূপভাব: বন্ধুদের প্রতি- B= লিডাম। C= সিড্রন, ফেরাম।
৩) লোকসঙ্গ (Company) বিতৃষ্ণা: লোকের দৃষ্টি এড়াতে চায়- A= সাইকু। B= কুপ্রা, জেলস, আই, লিডাম, ন্যাট্র-কা, সিপি, থুজা।
৪) ভয়: লোকদের- হায়োস, লাইকো, ন্যাট্র-কা, রাস। B= অ্যাকোন, অ্যানাকা, অরাম, ব্যারা-কা, কার্বো-ভে, কোনি, আই, ক্যালি-আর্স, ক্যালি-কা, লিডাম, ন্যাট্র-আর্স, ন্যাট্র-মি, প্ল্যাটি, পালস।
৫) ঘৃণা ( Hatred) – A= অ্যানাকা। B= অ্যাগারি, অরাম, ক্যাল্ক ল্যাক-ক্যান, ল্যাকে, লিডাম, ন্যাট্র-মি ।
৬) হিংসুক ( Malicious) – A= নাক্স-ভ, স্ট্র্যামো।
B= অ্যাকোন, অ্যানাকা, আর্স, অরাম, বেল, বোরা, ক্যাল্ক, কুপ্রা, হিপার, হায়োস, ল্যাক-ক্যান, ল্যাকে, লিডাম, লাইকো, ন্যাট্র-মি, নাই-অ্যাসি।
৭) মনুষ্য-ভীতি ( Men, dread of) – B= অরাম, ব্যারা-কা, সাইকু, লিডাম, লাইকো, ন্যাট্র-কা, পালস। C= অ্যালোজ, বারা-মি, কোনি, ডায়োস্কো, ইগ্নে, ল্যাকে, ন্যাট্র-মি, ফস, প্ল্যাটি, র্যাফে, সিপি, স্ট্যানা, সালফ।
৮) মনুষ্য বিদ্বেষ ( Misanthropy) – B= অ্যাম্ব্রা, অ্যামন-কা, অ্যানাকা, অ্যান্টি-ক্রু, অরাম, ক্যাল্ক, হায়োস, লিডাম, লাইকো, ন্যাট্র-কা, ফস, পালস, স্ট্যানা।
৯) ভাবগম্ভীর ( Serious) / আন্তরিকতা ( Earnestness) / গাম্ভীর্য ( Gravity) / গম্ভীর ( Solemn)- B= অ্যালু, সিনা, ককুল, লিডাম, মার্ক, সাল-অ্যাসি।
১০) প্রচণ্ড, অতিশয় আবেগযুক্ত (Violent )- A= অরাম, বেল সাইকু, হায়োস, নাক্স-ভ, স্ট্যামো। B= অ্যানাকা, ব্রায়ো, কার্বো-সাল, কার্বো-ভে, ক্যামো, ক্যালি-ফস, লিডাম, লাইকো, ন্যাট্র-মি, পেট্রো, ফস, সিপি, সালফ, ট্যারেন্টু, ভিরেট, ভিস্কাম।
১১) মধ্য রাতের আগে: বাড়ে- A= আর্জ-নাই, আর্স, কার্বো-ভে, ক্যামো, কফি, ক্যলি-আর্স, লিডাম, লাইকো, ফস, পালস, র্যানান-স্ক্লে, রিউমেক্স।
১২) গোসলে উপশম- A= অ্যাসের, লিডাম, পালস। B= অ্যামন-মি, অ্যাপিস, চেলিডো, ইউফ্রে, ল্যাক-ক্যান।
১৩) রক্তস্রাবী নাড়ীগুলোর বিস্তৃতি: জ্বরাবস্থায়- চায়না, হায়োস, লিডাম, পালস।
১৪) শীর্ণতা : আক্রান্ত অঙ্গে – A= গ্র্যাফ, লিডাম, পালস, সিকেলি। B= আর্স, কার্বো-ভে, লাইকো, মেজের, নাই-অ্যাসি, ফস, প্লাম্বা।
১৫) জৈব উত্তাপের অভাব ( Heat, flashes of) – A= অ্যারেনি, আর্স, ব্যারা-কা, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-আর্স, ক্যাল্ক-ফস, ক্যাম্ফ, কার্বো-অ্যানি, কস্টি, সিস্টা, ক্রোটেল-ক্যাস্ক, ডালকা, ফেরাম, গ্র্যাফ, হেলি, হিপার, ক্যালি-আর্স, ক্যালি-বাই, ক্যালি-কা, ক্যালি-ফস, লিডাম, ম্যাগ-ফস, নাই-অ্যাসি, নাক্স-ভ, ফস-এসিড, ফস, সোরিন, পাইরো,রাস, সাইলি।
১৬) সঞ্চালনে বাড়ে (Motion agg.) A= বেল, বিসমা, ব্রায়ো, চেলিডো, চায়না, ককুল, কলচি, কলো, গুয়াই, লিডাম, মার্ক, নাক্স-ভ, র্যানান-বা, স্যাবি, সাইলি, সালফ।
১৭) সূঁচফোটানো ব্যথা বাহ্যিকভাবে (Stitching externally)- A= অ্যাসাফ, বেল, ব্রায়ো, ক্যাল্ক, কার্বো-সাল, সাইকু, কোনি, ক্যালি-কা, ক্যালি-ফস, ক্যালি-সাল, লিডাম, মার্ক, পালস, র্যানান-বা, রাস, স্পাইজে, স্ট্যাফি ।
১৮) ছিন্নকর ব্যথা বাহ্যিকভাবে- A= অ্যাকোন, ইস্কু, আর্নি, বেল, বার্বে, ব্রায়ো, কার্বো-সাল, চায়না, সাইকু, সিনা, কলচি, হাইপেরি, ইগ্নে, ক্যালি-কা, ক্যালি-ফস, ক্যালি-সাল, লিডাম, লাইকো, ন্যাট্র-মি, ন্যাট্র-ফস, ন্যাট্র-সাল, নাই-অ্যাসি, পালস, সিপি, সাইলি, সালফ।
১৯) ভ্রাম্যমান ব্যথা ( Wandering) – A= চেলিডো, জেলস, ইগ্নে, ক্যালি-বাই, ক্যালি-সাল, ল্যাক-ক্যান, লিডাম, পালস।
২০) হাঁটলে বাড়ে ( Walking agg.) A= ইস্কু, বেল, ব্রায়ো, ক্যাল্ক, ক্যানা-স্যাট, ককুল, কলচি, কোনি, লিডাম, নাই-অ্যাসি, নাক্স-ভ, স্পাইজে, স্ট্যানা, সালফ।
২১) গরমে, উষ্ণতায় বাড়ে ( Warm agg.)- A= অ্যালু, অ্যাপিস, আর্স-আই, উইফর্বি, ফেরাম, জেলস, গ্লোন, ক্যালি-ব্রো, আয়োড, লিডাম, পালস, সিকেলি।
২২) ক্ষত ( Wounds) – A= লিডাম। B= অ্যাপিস, আর্নি, ল্যাকে, ফস, পালস, স্ট্যাফি, সাল-অ্যাসি।

#সংকলনে: ডা.এইচ.এম.আলীমুল হক
ডিএইচএমএস (বিএইচবি), কিউএইচসিবি (বিইউবি)
চেম্বার: আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী, মৌচাক, মিজমিজি
সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ।
চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শের জন্য: ১০০টাকা বিকাশ করুন
(বিকাশ পার্সনাল: ০১৯১৬-৫১১ ৩৩৭) তারপর কল করুন
এই নাম্বারে: 01616-511337, 01816-511337