Category: চতূর্থ বর্ষ

গাইনিকোলজি (স্ত্রীরোগ বিদ্যা) ও মিডওয়াইফারী (ধাত্রী বিদ্যা): পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষ: গাইনিকোলজি বা স্ত্রীরোগ বিদ্যা:- ১। হোমিওপ্যাথিক আরোগ্য কলায় গাইনিকোলজি শিক্ষার আবশ্যকতা এবং স্ত্রীরোগসমূহ ও তাদের চিকিৎসায় এলোপ্যাথিক ও হোমিওপ্যাথিক পার্থক্য। ২। স্ত্রীযৌনাঙ্গের দৈহিক গঠন। ৩। গাইনিকলোজিকেল পরীক্ষা ও হোমিওপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গিতে রোগীলিপি সংগ্রহ। ৪। ডিম্বক্ষরণ, মাসিক পিউবারটি বা বয়ঃসন্ধি, মনোপজ বা অস্বাভাবিকতা। ৫। মাসিক বা ঋতুস্রাবের গোলযোগ: (ক) ঋতুবদ্ধতা; (খ) গোপন

সার্জারি বা শৈল্যবিদ্যাঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষ: ১। হোমিওপ্যাথিতে সার্জারীর অবস্থান এবং সার্জিক্যাল রোগসমূহ ও তাদের ব্যবস্থাপনায় এলোপ্যাথিক ও হোমিওপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য। ২। বীজ দূষণ, এন্টিসেপটিক মিজারস ও জীবাণুমুক্তকরণ। ৩। রক্তক্ষরণ, শক, রক্তদান, তরল ও ইলেক্ট্রোলাইটের সমতা। ৪। ক্ষতসমূহ, অগ্নিদগ্ধ ও ঝলসানের, ফোঁড়া, সেলুলাইটিস, বয়েলস, কার্বাঙ্কাল এবং গ্যাংগ্রীন। ৫। অগ্নিচুর্ণের আঘাতসমূহ এবং উর্ধাঙ্গ ও নিম্নাঙ্গের স্থানচ্যুতি, মাথার

চিকিৎসা আইন বিজ্ঞান (ফরেনসিক মেডিসিন বা মেডিক্যাল জুরিসপ্রুডেন্স): পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্স ৪র্থ বর্ষ| ১। চিকিৎসা আইন বিদ্যার সংজ্ঞা। ২। আদালত ও তাদের বৈধ কর্তৃত্ব। ৩। মেডিকেল রেজিষ্ট্রেশনের সাথে আইনগত সম্পর্ক এবং চিকিৎসক ও রাষ্ট্রের সম্পর্ক। ৪। মেডিকেল সার্টিফিকেট ও ব্যক্তির সনাক্তকরণ। ৫। ময়না তদন্তের পরীক্ষা সমূহ (কটপসি)। ৬। মৃত্যু, ডেথ কোমার ধরণ, মুর্চ্ছা, শ্বাসরুদ্ধ মৃত্যুর চিহ্ন এবং লক্ষণসমূহ, আকস্মিক মৃত্যুর কারণ। ৭। ক্ষত,

ক্রনিক ডিজিজ বা চিররোগ তত্ব: পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষ। ১। চির ও অচির রোগের সংজ্ঞা। ২। চিররোগের কারণ সমূহ। ৩। সোরা, সিফিলিস ও সাইকোসিস। ৪। সোরা সংবেদনশীলতা সৃষ্টি করে। ৫। সেরা কুমননের ফল এবং সাইকোসিস ও সিফিলিস কুকার্যের ফল। ৬। গনোরিয়া সাইকোসিস নয়, কিন্তু ইহা যখন চাপা দেয়া হয তখন সাইকোসিসে পরিণত হতে পারে। ৭। পুরাতন রোগের প্রকুতি আবিষ্কারের

কেইস টেকিং ও রেপার্টরিঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষ। রোগীলিপি বা কেইস টেকিং অংশ ১।(ক) হোমিওপ্যাথিক দৃষ্টিকোন থেকে রোগীর পরীক্ষা; (খ) দৈহিক পরীক্ষা, ইন্টারোগেমন, মোডালিটিস; (গ) চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। ২।(ক) রোগ লক্ষণ লিপিবদ্ধকরণ এবং রেকর্ড সংরক্ষণের উপকারিতা। (খ) চিররোগের লক্ষণ সংগ্রহে জটিলতা সমূহ। ৩। (ক) লক্ষণ সমষ্টি; (খ) উদ্ভুত ও চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যসমূহ; (গ) গ্রেডিমন বা ক্রমোন্নতি ও লক্ষণ সমূহের মূল্যায়ন;

প্র্যাকটিস অব মেডিসিন বা ব্যবহারিক চিকিৎসাঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৩য় বর্ষ ও ৪র্থ বর্ষ। ৩য় বর্ষ: ১। প্র্যাকটিস অব মেডিসিনের সংজ্ঞা। ২। হোমিওপ্যাথিতে প্র্যাকটিস অব মেডিসিনের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা। ৩। হোমিওপ্যাতিতে প্রাথমিক চিকিৎসা। ৪। হজম প্রক্রিয়ার রোগ সমূহ: (ক) স্টোম্যাটাইটিস; (খ) গ্লোসিটিস বা জিহ্বা প্রদাহ; (গ) টনসিলাইটিস; (ঘ) ফেরিংজাইটিস; (ঙ) পেপটিক আলসার (গ্যাস্ট্রিক ও ডিওডেনাল); (চ) অন্ননালীর ক্যান্সার; (ছ) হায়াটাস হার্নিয়া;

মেটেরিয়া মেডিকা ও টিস্যু রেমেডিসঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ১ম বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ পর্যন্ত। ১ম বর্ষ: প্রথম পত্র: মেটেরিয়া মেডিকা: ১। হোমিও মেটেরিয়া মেডিকার সংজ্ঞা। ২। মেটেরিয়া মেডিকার ব্যবহার বা কার্যক্ষেত্র। ৩। হোমিওপ্যাথিক ও এলোপ্যাথিক মেটেরিয়া মেডিকার পার্থক্য। ৪। হোমিওপ্যাথিক মেটেরিয়া মেডিকার উৎস সমূহ। ১ম বর্ষে পঠিতব্য হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সমূহের তালিকা:— (১) একোনাইট নেপেলাস। (২) ইথুজা সাইনোপিয়াম। (৩) এলিয়াম সেপা।

হোমিওপ্যাথিক রেপার্টরীর পাঠ্য বিষয়সমূহ

১. হোমিওপ্যাথিক রেপার্টরীর সংজ্ঞা ২. হোমিওপ্যাথিক রেপার্টরীর ইতিবৃত্ত ৩. হোমিওপ্যাথিক রেপার্টরীর বিভিন্ন ধরন ৪. হোমিওপ্যাথিক রেপার্টরীর ব্যবহার পদ্ধতি ৫. হোমিওপ্যাথিক রেপার্টরীর কর্ম সম্পাদন ধারা ৬. বার্থেল ও ক্লেঙ্কার এর সিনথেটিক রেপার্টরী ৭. রেপার্টরী ব্যবহারে সুবিধা ৮. রেপার্টরী ব্যবহারে অসুবিধা ৯. বোরিক রেপার্টরী গঠন প্রণালী ১০. বোরিক রেপার্টরী ব্যবহার প্রণালী ১১. বেনিংহাউসেনের রেপার্টরী গঠন প্রণালী ১২.

রোগীলিপি সম্পর্কিত পাঠ্য বিষয়সমূহ

১. রোগীলিপি পরিচিতি- ২. উত্তম ব্যবস্থাপত্র তৈরির জন্য চিকিৎসকের কি কি জানা প্রয়োজন? ৩. হোমিওপ্যাথিক মতে রোগীর পরীক্ষা। ৪. রোগীর প্রতি জিজ্ঞাসা ও অনুসন্ধান। ৫. উপচয়-উপশম বা হ্রাস-বৃদ্ধি। ৬. রোগীলিপি প্রস্তুত করার নিয়ম- ৭. রোগচিত্র অনুসন্ধান ও রোগীলিপি প্রণয়নে চিকিৎসকের প্রতি হ্যানিম্যানের উপদেশ। ৮. রোগীলিপি প্রণয়নে চিকিৎসকের গুণাবলী। ৯. লক্ষণাবলী লিপিবদ্ধ ও সংরক্ষণ রাখার সুফল।

ডি.এইচ.এম.এস.(ডিপ্লোমা)কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষের পাঠ্যক্রম

প্রথম পত্র: মেটেরিয়া মেডিকা ৪র্থ বর্ষে পঠিতব্য হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সমূহের তালিকা: (১) এসিডাম ফ্লোরিকাম; (২) আর্জেন্টাম নাইট্রিকাম; (৩) অরাম মেটালিকাম; (৪) কষ্টিকাম হ্যানিম্যানি; (৫) ক্লোরাম ফেনিকল; (৬) কোনিয়াম মেকুরেটাম; (৭) কুপ্রাম মেটালিকাম; (৮) গ্রাফাইটিস; (৯) হেলিবোরাস নাইজার; (১০) হায়োসিয়ামাস নাইজার; (১১) জাষ্টিসিয়া আডাটোডা; (১২) ল্যাক কেনিনাম; (১৩) ল্যাকেসিস; (১৪) লাইকোপোডিয়াম; (১৫) মেডোরিনাম; (১৬) ওপিয়াম; (১৭)