Sabina Off (স্যাবাইনা অফ): ডা.এইচ.সি.এলেন

Sabina Off (স্যাবাইনা অফ)
#নিজস্বকথাঃ
১। সেক্রাম হতে পিউবিস বা পাছা হতে প্রস্রবদ্বার পর্যন্ত ধাবমান বেদনা।
২। প্রবল রক্তস্রাবের সঙ্গে কালোকালো রক্তের চাপ।
৩। স্রাব সামান্য নড়াচড়ায় বৃদ্ধি পায়।
৪। গান বাজনায় বিরক্ত।
#মূলকথাঃ
১। যথা সময়ের পূর্বে ঋতুস্রাব হয়, উজ্জ্বল, আংশিক তরল, আংশিক চাপযুক্ত, প্রচুর পরিমাণে ঋতুস্রাব, তার সহিত সেক্রাম থেকে পিউবিস পর্যন্ত ব্যথা।
২। গান অসহ্য, গান শুনলে স্নায়ু উত্তেজিত হয় এবং মনে হয় যেন গানের শব্দ তার হাড় ও মজ্জার ভিতর দিয়ে ঢুকছে।
৩। তৃতীয় মাসে গর্ভপাত, তারপর জরায়ু হতে কতক উজ্জ্বল লাল ও কতক ঘন ব্লিডিং হয়, নড়াচড়ায় বৃদ্ধি, অনেক সময় চলাফেরা করলে স্রাব কমে যায়।
৪। জরায়ুর ভিতরে মোল বা অন্য কিছু আটকে থাকলে, তা বের করবার ক্ষমতা এ ঔষধের আছে।
#উপযোগিতাঃ
১। মহিলাদের পুরাতন রোগ, সন্ধিবাত, তৃতীয় মাসে গর্ভপাতের প্রবণতা। গানবাজনা অসহ্য, গানবাজনায় রোগীনি নার্ভাস হয়ে পড়ে, উত্তেজিত হয়ে পড়ে- ঐ উত্তেজনা যেন মেরুদন্ডের হাড় ও মজ্জার মধ্য দিয়ে বয়ে যায় (গানবাজনায় কান্না আসে-থুজা)।
২। প্রায় সবরোগেই পিঠের নীচের দিকে কোমরের সন্ধিস্থানের দু’পাশে গর্তমত স্থানে, সেক্রাম হতে পিউবিস হাড় অবধি টেনে ধরার মত যন্ত্রনা হয় (পিঠ হতে দেহ ঘুরে পিউবিস স্থান অবধি যন্ত্রণায়- ভাইবার্নাম অপু)।
৩। রোগের উপসর্গ: গর্ভপাত বা অকালে প্রসবের পরে জরায়ু হতে রক্তস্রাব হতে থাকলে, স্রাব কিছুটা ফ্যাকাসে লাল, কিছুটা চাপচাপ মত- সামান্য নড়াচড়ায় স্রাব বেড়ে যায় (সিকেলি), হেটে বেড়ালে প্রায়ই উপশম হয়- ঐ সময় তলপেটের যন্ত্রণা সেক্রাম হতে পিউবিস অবধি হতে থাকে।
৪। ঋতুস্রাব: নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগে, প্রচুর পরিমাণে, অনেকদিন ধরে হতে থাকে। স্রাব কিছুটা তরল কিছুটা চাপবাধা (ফেরাম), যে সব মহিলাদের অল্প বয়সেই আদ্যঋতু হয়েছিল তাদের ক্ষেত্রে উপযোগী। স্রাব থেমে থেমে হয়- ঐ সাথে তলপেটে মূলব্যথা, প্রসবের মত ব্যথা থাকে। সেক্রাম হতে পিউবিস অবধি যন্ত্রনা হতে থাকে। দুই ঋতুর মাঝে জরায়ু হতে রক্তস্রাব হয, সাথে যৌন উত্তেজনা বেড়ে যায় (এম্ব্রা)।
৫। প্রসবের পর ফুল আটকে থাকে, প্রসবান্তে তীব্র ভ্যাদাল ব্যতা হতে থাকলে (কলোফা, সিকেলি) ব্যবহার্য। যেসব মহিলাদের আগে গর্ভপাত হয়েছিল বা অল্প বয়সেই আদ্যঋতু দেখা দিয়েছিল তাদের রজোনিবৃত্তিকালে অধিক পরিমাণে ঋতুস্রাব হলে উপযোগী।
৬। জরায়ুতে কিছু (ফুল ইত্যাদি) থেকে গিয়ে পঁচে উঠলে বা বাহিরের কিছু আটকে থাকলে এ ঔষধ ঐসব বের করে দিতে সাহায্য করে (ক্যান্থা), ডুমুরের মত আঁচিল, এতে অসহ্য চুলকানি ও জ্বালা হতে থাকলে ও জরায়ুতে দানাদানার মত মাংসাঙ্কুর জন্মালে কমিয়ে দিতে বা বের করে দিতে সাহায্য করে (থুজা, এসি-নাই)।
৭। অনুপুরক-থুজা। অস্বাভাবিক মাংসবৃদ্ধি ও সাইকোসিস দোষে থুজার পর ভাল খাটে। বৃদ্ধি: সামান্য নড়াচড়ায় (সিকেলি), গরম বাতাস বা গরম ঘরে (এপিস, পালস)। উপশম: ঠান্ডা, খোলা ও নির্মল বাতাসে।

-ডা. এইচ এম আলীমুল হক, আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী,
মৌচাক, মিজমিজি, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ,
ঢাকা, বাংলাদেশ। ০১৯২০-৮৬৬ ৬