Category: রোগনির্ণয় বা প্যাথলজী

প্যাথলজি বা রোগনির্ণয় বিদ্যা: পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৩য় বর্ষ: ১। হোমিওপ্যাথিতে প্যাথলজি শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা। ২। প্যাতলজির হোমিওপ্যাথিক ও এরৈাপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য। ৩। প্যাথলজির সংজ্ঞা ও শ্রেণীবিভাগ। ৪। সাধরাণ প্যাথলজি: (ক) প্রদাহ (তরুণ ও পরাতন) এবং রিপেয়ার; (খ) টকসিমিয়া, সেপটিসোমিযা বা রক্তদুষ্টি, রক্তে পীড়া ও জীবাণুর অবস্থা; (গ) অপকষ, নেক্রোসিস, গ্যাংগ্রিন, আলসার; (ঘ) গ্রোথ ও ইহার ডিসঅরডাস- কালাশীর্ণতা, হাইপার ট্রাপি

প্যাথলজি ও হোমিওপ্যাথি

ডা. রবিন বর্মন হোমিওপ্যাথিতে প্যাথলজীর কোন প্রয়োজন আছে কি? এ প্রসঙ্গে জানাই—- শরীরেন নর্মাল ফাংশান = ফিজিওলজী, এ্যাবনর্মাল ফাংশন = প্যাথলজী, তাই আমাদের সবাইকে শরীরের নর্মাল, এবং এ্যাবনর্মাল দুইরকম ফাংশনই জানার দরকার, ★প্যাথলজি জানলে আমরা শরীরের কোন অর্গান কি পজিসনে আছে তা জানতে পারবো, ★রোগটি আরোগ্যের মধ্যে, না আরোগ্যের বাইরে, তা জানতে পারবো, ★আরোগ্যের মধ্যে