Category: সংক্ষিপ্ত ঔষধ পরিচয়

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের তালিকা:

প্রখম ৫০টি ঔষধ: (১) Acid Nitric (এসিড নাইট্রিক) (২) Acid phos (এসিড ফস) (৩) Aconit Nap (একোনাইট নেপ) (৪) Agnus cast (এগনাস ক্যাষ্ট) (৫) Allium Cepa (এলিয়াম সেপা) (৬) Antim Crud (এন্টিম ক্রড) (৭) Apis Mel (এপিস মেল) (8) Aralia Racimosa (এরালিয়া রেসিমোসা) (৯) Arnica Mont (আর্নিকা মন্ট) (১০) Arsenic Album (আর্সেনিক এলবাম) (11) Bacillinum

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের নিজস্বকথাঃ ৪র্থ পর্যায়

১. Abrotanum (অ্যাব্রোটেনাম): (১) পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন রোগ বা রোগের রূপান্তর। (২) উদরাময়ে উপশম। (৩) ক্ষয়দোষ বা প্রবল ক্ষুধা সত্ত্বেও দেহ শুকাইয়া যায়। (৪) বাচালতা। ২. Acid Acetic (এসিড অ্যাসেটিক): (১) প্রচুর প্রস্রাব,প্রবল পিপাসা ও অরুচি। (২) দারুণ দূর্বলতা ও শ্বাসকষ্ট। (৩) জ্বরে পিপাসা নাই কিন্তু অন্য রোগের সাথে প্রবল পিপাসা। ৩. Acid Picric (এসিড পিকরিক):

ক্যালকেরিয়া (Calcarea) গ্রুপ বিষয়ে কিছু তথ্য

ক্যালকেরিয়া হোমিওপ্যাথিক এই ঔষধটির নাম উচ্চারন করলে আমাদের যে ঔষধটির নাম ভেসে আসে তা হল ক্যালকেরিয়া কার্ব। যার উৎস সামুদ্রিক শামুক থেকে। সহজ কথায় বলতে গেলে আমাদের দেশে পানের সাথে যে চুনটি ব্যবহৃত হয় তাই ক্যালকেরিয়া। হোমিওপ্যাথিক মেটেরিয়াতে ক্যালকেরিয়া কার্ব ছাড়াও ক্যালকেরিয়া সংশ্লিষ্ট অনেক ঔষধ আছে। যেমন-ক্যালকেরিয়া ফস, ক্যালকেরিয়া ফ্লোর, ক্যালকেরিয়া আর্স, ক্যালকেরিয়া এসেট, ক্যালকেরিয়া

ব্যাসিলিনাম এবং টিউবারকুলিনাম ঔষধ দুটির পার্থক্য

ব্যাসিলিনাম এবং টিউবারকুলিনাম ঔষধ দুটিকে অনেক লেখকগণ একত্রে আলোচনা করেছেন এবং একই ঔষধ বলেছেন কিন্তু এদের সোর্স যেমন আলাদা তেমনি ব্যবহারিক ক্ষেত্রেও অনেক পার্থক্য দেখা যায়। যেমন- ব্যাসি-একিউট ক্ষেত্রে। টিউব-ক্রণিক ক্ষেত্রে। ব্যাসি-চর্মরোগপ্রবণ হবে। টিউব-সহজেই ঠান্ডা লাগার প্রবণতা সম্পন্ন হবে। ব্যাসি-শুষ্কতা থাকবে।ভেজাভাব থাকবেনা। টিউব-স্রাব নির্গত হবে।ভেজা ভাব থাকবে।অধিক পরিমাণে গয়ের থাকবে। ব্যাসি- নিঃশ্বাস বন্ধ হওয়ার ভাব

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের নিজস্বকথাঃ ৩য় পর্যায়

১. Anagalis (অ্যানাগ্যালিস): (১) আনন্দে উৎফুল্ল, মুখে হাসি। (২) দেহের মধ্য হতে কাঁটা বের করার ক্ষমতা। (৩) জলাতঙ্ক, সর্পদংশনের বিষ নষ্ট করে। ২. Apocynum (অ্যাপোসাইনাম): (১) পর্যায়ক্রমে শোথ ও উদরাময়। (২) প্রস্রাবের অভাব, ঘর্মের অভাব। (৩) ঠান্ডা পানি সহ্য হয় না। শীতকাতর। (৪) প্রস্রাব, ঘর্ম ও ঋতুস্রাব বাধা প্রাপ্ত হয়ে শোথ, শোথ উদরাময়ে উপশম। ৩.

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের নিজস্বকথাঃ ২য় পর্যায়

১. Abis Nigra (এবিস নাইগ্রা): (১) পাকস্থলীর পীড়ার বায়ু ও অম্লের লক্ষণের সহিত হৃদপিণ্ডের পীড়া। (২) আহারের পর পেট বেদনা, অতিরিক্ত চা পান ও তামাক খাওয়ার জন বদহজম। (৩) বুকের ভিতর বা ভুক্তদ্রব্য পেটের ভিতর শক্ত গোলার মত আটকে থাকার অনুভুতি। (৪) দুপুরে ও রাতে অত্যন্ত ক্ষুধা, সকালে ক্ষুধাহীনতা। ২. Acid Chryso (এডিস ক্রাইসো): (১)

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের নিজস্বকথাঃ ১ম পর্যায়

১. Aconit Nap (একোনাইট ন্যাপ): (১) আকস্মিকতা ও ভীষণতা । (২) মৃত্যুভয় ও অস্থিরতা । (৩) পিপাসা ও জ্বালা । (৪) প্রচন্ড শীত বা প্রচন্ড গরমের প্রকোপ । ২. Acid Nitric (এসিড নাইট্রিক): (১) স্রাবে দূর্গন্ধ, বিশেষতঃ প্রস্রাবে । (২) শ্লৈষ্মিক ঝিল্লি ও চর্মের সন্ধিস্থলে ক্ষত বা ফেঁটে যাওয়া। (৩) কাটা ফোঁটার মত ব্যথা। (৪)