Category: Medical

বায়োলজি (জীব-উদ্ভিদ), ফিজিক্স ও কেমিস্ট্রি (পদার্থ ও রসায়ন): পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ১ম বর্ষ: জীব বিদ্যা অংশঃ—— ১। জীব বিদ্যা: (ক) জীবনের সংজ্ঞা। (খ) প্রোটোপ্লাজমের বর্ণনা। (গ) জীব বিজ্ঞান এবং এর শাখা সমূহ। (ঘ) জীবের বৈশিষ্ট্য। (ঙ) জীব ও জড়ের মধ্যে পার্থক্য। (চ) উদ্ভিদ ও প্রাণীর মধ্যে পার্থক্য। ২। উদ্ভিদ কোষ: (ক) আদর্শ উদ্ভিদ কোষের অংশ সমূহ ও তাদের কার্যাবলী। (খ) কোষের বিভাজন (মাইটোসিক

অ্যানাটমি (অঙ্গব্যবচ্ছেদ-বিদ্যা) ও ফিজিওলজি (শরীর-বিদ্যা): পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ২য় বর্ষ: এনাটমী পার্ট-১ ১। হোমিওপ্যাথির দৃষ্টিকোণ থেকে রোগ সম্পর্কে এনাটমীর জ্ঞানের আবশ্যকতা। ২। এনাটমীর সংজ্ঞা ও শাখা সমূহ। ৩। এনাটমীর বর্ণনামূলক বিষয়: মিডিয়াম প্লেন, পোষ্টেরিয়ার মিডিয়ান প্লেন, ট্রান্সপারোরিক প্লেন, ইন্টারকুলার প্লেন, মিড ইনজুইনাল প্লেন, মেজিটাল সুচার, মেডিটাল প্লেন, করোনাল সুচার, এনটোরিয়ার পোষ্ঠেয়ির, যরমাল, ভেনট্রাল, সুপিরিয়র, ইনফিরিয়র, এক্সিম্যার, সুপারফিসিয়ার এবং ডিপপ্লান্টর ও

হোমিওপ্যাথিক ফার্মেসি ও ফার্মাকোপিয়াঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা)কোর্সঃ ২য় বর্ষ: ১। ফার্মেসী ও ফার্মাকোপিয়ার সংজ্ঞা। ২। সংক্ষিপ্ত নাম ও ব্যবস্থাপত্র লিখন। ৩। হোমিওপ্যাথিক ভেষজের উৎসসমূহ। ৪। হোমিওপ্যাথিক ফার্মেসীতে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সম্বন্ধে সাধারণ ধারণা। ৫। হোমিওপ্যাথিতে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সমূহ: (ক) পরিস্রুত পানি- ইহার ধর্মাবলী ও পরীক্ষা সমূহ। (খ) এলকোহল ও ইহার ধর্মাবলী। (গ) দুগ্ধ শর্করা ও ইহার ধর্মাবলী। (ঘ) গ্লোবুলেস- পিল সমূহের

স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও জনস্বাস্থ্যঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা)কোর্সঃ ২য় বর্ষ: ১। লোকসমাজ, চিকিৎসা বিজ্ঞানের ধারণা, জনস্বাস্থ্যের সংজ্ঞা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান, সামাজিক ঔষধ। ২। বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সেবা; প্রাথমিক স্বাস্থ্য যত্ন, বাংলাদেশের গণস্বাস্থ্যের প্রশাসন। ৩। আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সংস্থাসমূহ। ৪। স্বাস্থ্যশিক্ষা: পেশাগত স্বাস্থ্য, মানসিক স্বাস্থ্য ও ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য বিজ্ঞান। ৫। টিকা ও রোগ প্রতিরোধক চিকিৎসা সম্বন্ধে হোমিওপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গি। ৬। রোগের প্রাকৃতিকি ইতিহাস, আইসবার্গ ফেনম্যানা, রোগ

গাইনিকোলজি (স্ত্রীরোগ বিদ্যা) ও মিডওয়াইফারী (ধাত্রী বিদ্যা): পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা)কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষ: গাইনিকোলজি বা স্ত্রীরোগ বিদ্যা:- ১। হোমিওপ্যাথিক আরোগ্য কলায় গাইনিকোলজি শিক্ষার আবশ্যকতা এবং স্ত্রীরোগসমূহ ও তাদের চিকিৎসায় এলোপ্যাথিক ও হোমিওপ্যাথিক পার্থক্য। ২। স্ত্রীযৌনাঙ্গের দৈহিক গঠন। ৩। গাইনিকলোজিকেল পরীক্ষা ও হোমিওপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গিতে রোগীলিপি সংগ্রহ। ৪। ডিম্বক্ষরণ, মাসিক পিউবারটি বা বয়ঃসন্ধি, মনোপজ বা অস্বাভাবিকতা। ৫। মাসিক বা ঋতুস্রাবের গোলযোগ: (ক) ঋতুবদ্ধতা; (খ) গোপন ঋতুস্রাব;

প্যাথলজি বা রোগনির্ণয় বিদ্যা: পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা)কোর্সঃ ৩য় বর্ষ: ১। হোমিওপ্যাথিতে প্যাথলজি শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা। ২। প্যাতলজির হোমিওপ্যাথিক ও এরৈাপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য। ৩। প্যাথলজির সংজ্ঞা ও শ্রেণীবিভাগ। ৪। সাধরাণ প্যাথলজি: (ক) প্রদাহ (তরুণ ও পরাতন) এবং রিপেয়ার; (খ) টকসিমিয়া, সেপটিসোমিযা বা রক্তদুষ্টি, রক্তে পীড়া ও জীবাণুর অবস্থা; (গ) অপকষ, নেক্রোসিস, গ্যাংগ্রিন, আলসার; (ঘ) গ্রোথ ও ইহার ডিসঅরডাস- কালাশীর্ণতা, হাইপার ট্রাপি বা

সার্জারি বা শৈল্যবিদ্যাঃ পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্সঃ ৪র্থ বর্ষ: ১। হোমিওপ্যাথিতে সার্জারীর অবস্থান এবং সার্জিক্যাল রোগসমূহ ও তাদের ব্যবস্থাপনায় এলোপ্যাথিক ও হোমিওপ্যাথিক দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য। ২। বীজ দূষণ, এন্টিসেপটিক মিজারস ও জীবাণুমুক্তকরণ। ৩। রক্তক্ষরণ, শক, রক্তদান, তরল ও ইলেক্ট্রোলাইটের সমতা। ৪। ক্ষতসমূহ, অগ্নিদগ্ধ ও ঝলসানের, ফোঁড়া, সেলুলাইটিস, বয়েলস, কার্বাঙ্কাল এবং গ্যাংগ্রীন। ৫। অগ্নিচুর্ণের আঘাতসমূহ এবং উর্ধাঙ্গ ও নিম্নাঙ্গের স্থানচ্যুতি, মাথার

চিকিৎসা আইন বিজ্ঞান (ফরেনসিক মেডিসিন বা মেডিক্যাল জুরিসপ্রুডেন্স): পাঠ্যক্রম ও সহায়কগ্রন্থ

ডি.এইচ.এম.এস. (ডিপ্লোমা) কোর্স ৪র্থ বর্ষ| ১। চিকিৎসা আইন বিদ্যার সংজ্ঞা। ২। আদালত ও তাদের বৈধ কর্তৃত্ব। ৩। মেডিকেল রেজিষ্ট্রেশনের সাথে আইনগত সম্পর্ক এবং চিকিৎসক ও রাষ্ট্রের সম্পর্ক। ৪। মেডিকেল সার্টিফিকেট ও ব্যক্তির সনাক্তকরণ। ৫। ময়না তদন্তের পরীক্ষা সমূহ (কটপসি)। ৬। মৃত্যু, ডেথ কোমার ধরণ, মুর্চ্ছা, শ্বাসরুদ্ধ মৃত্যুর চিহ্ন এবং লক্ষণসমূহ, আকস্মিক মৃত্যুর কারণ। ৭। ক্ষত,

হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের রোগীলিপি তৈরির কৌশল

হ্যানিমান অর্গাননের প্রথম সূত্রে বলেছেন— The physicians high and only mission is to restore the sick to health, to cure —মানে–The sole mission of a physician is to cure a sick person. দ্বিতীয় সূত্রে তিনি বলছেন— The highest ideal of cure is rapid, gentle, and permanent restoration of the health—– $ 273 এ তিনি বলেছেন—

দ্বিতীয় ব্যবস্থাপত্রঃ চিকিৎসকের করনিয়

১. রোগী যখন বলে “আমি ভাল অনুভব করছি।” তখন আপনি অপেক্ষা করুন। এমন কি নুতন কোন ওষুধের পরিস্কার চিত্র পাওয়া গেলেও তা দিবেন না। হোমিওপ্যাথ হিসেবে আমরা জানি যে যখন রোগী ভাল বোধ করতে থাকেন তখন বুঝতে হবে রোগীর ভাইটালিটির উন্নতি ঘটছে। ২. কখনও ওষুধ প্রেসক্রাইব করবেন না যতক্ষণ না পর্যন্ত আপনি পরিস্কার কোন ওষুধের