Category: Medical

আর্সেনিক এ্যাল্ব (ARSENIC-ALB)

আর্সেনিক এ্যাল্ব ………….. আজ একজন দুর্বল, শীর্ণ, সাংঘাতিক অস্থির, খুঁতখুঁতে, পরিষ্কার, কৃপণ, লোভী মানুষের গল্প শোনাবো। হ্যাঁ আর্সেনিকের গল্প। আর্সেনিক-এ্যাল্বামে সাংঘাতিক শব্দটি যেন প্রধান কথা। তাই সাংঘাতিক শব্দটি দিয়ে আর্সেনিকের চিত্র আঁকার চেষ্টা করবো। পশ্চিমবাংলার লিজেন্ড হোমিওপ্যাথ অধ্যাপক ডা. রবিন বর্মন স্যার রসিকতা করে আমার একটা পোস্টে কমেন্ট করেছিলেন, ভবিষ্যতে “সাংঘাতিক” শব্দটি দিয়ে যেন একটা

বাংলাদেশে হোমিওপ্যাথি বোর্ড প্রতিষ্ঠার ইতিহাস

স্বাধীন বাংলাদেশে হোমিওপ্যাথি বোর্ড প্রতিষ্ঠা ও ডি এইচ এম এস কোর্স প্রবর্তন এবং হোমিওপ্যাথির বিকাশ ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর পাকিস্তানী সৈন্যদের বিনা শর্তে আত্মসমপর্ণের মাধ্যমে পূর্ব পাকিস্তানে পশ্চিম পাকিস্তানীদের শাসন ও শোষণ চিরদিনের জন্য বন্ধ হয়ে যায় এবং স্বাধীন সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ রাষ্ট্রের পত্তন হয়। স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৭২ সালে বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর

ভারতবর্ষে হোমিওপ্যাথির ইতিহাস

ভারতবর্ষে হোমিওপ্যাথির সূচনাপর্ব জার্মানীর স্যাক্সিনি প্রদেশের মাইসেন শহরের চিকিৎসক স্যামুয়েল হ্যানিমান (১৭৫৫-১৮৪৩ খ্র্রীঃ) কালেন সাহেব লিখিত অ্যালোপ্যাথিক মেটেরিয়া মেডিকার দ্বিতীয় খন্ডের ‘সিঙ্কোনা’ (Cinchona) অধ্যায় অনুবাদ করার সময় আরোগ্যের এক নতুন নিয়মের সন্ধান পেয়েছিলেন। হ্যানিম্যানের এই নতুন চিকিৎসা পদ্ধতি পরবর্তীকালে ‘হোমিওপ্যাথি’ নামে প্রসিদ্ধি লাভ করে। জার্মানীর পর ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য ও ইউরোপের কয়েকটি দেশে হোমিওপ্যাথি প্রসারের সাথে

প্রধানমন্ত্রীকে করোনা ভাইরাসে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা ও মন্ত্রণালয় “প্রজ্ঞাপন” জন্য “খোলা চিঠি”

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সালাম ও শুভেচ্ছা নিবেন। বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস টেস্ট সরকারিভাবে করা হয়। রোগী টেস্ট করার পর যদি পজিটিভ ধরা পড়ে তখন সরকারের প্রশাসন/সরকারি স্থানীয় প্রশাসন সরকারি এম্বুলেন্স, ডাক্তার, নার্স, প্রশাসনের লোকজন, পুলিশ সদস্য প্রেরণ করে রোগীকে সরকারি করোনা ভাইরাস বিষয় নিদিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যায় ও বাড়ীর লোকজনসহ লকডাউন করে রাখে। তাহলে কিভাবে বাংলাদেশে করোনা

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় “প্রজ্ঞাপন” ব্যতিত করোনা রোগী টেস্টে পজিটিভ হলেও হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার সুযোগ নেই?

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস টেস্ট সরকারিভাবে করা হয়। রোগী টেস্ট করার পর যদি পজিটিভ ধরা পড়ে তখন সরকারের প্রশাসন/সরকারি স্থানীয় প্রশাসন সরকারি এম্বুলেন্স, ডাক্তার, নার্স, প্রশাসনের লোকজন, পুলিশ সদস্য প্রেরণ করে রোগীকে সরকারি করোনা ভাইরাস বিষয় নিদিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যায় ও বাড়ীর লোকজনসহ লকডাউন করে রাখে। তাহলে কিভাবে বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস চিকিৎসা হোমিওপ্যাথিতে সম্ভব? টেস্ট রিপোর্ট

হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ (ডিপ্লোমা) সমূহের নাম ও ঠিকানা

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ড ১৯৭৩ সালে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীন একটি স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা হিসাবে ১৯৮৩ সালের অধ্যাদেশ এবং আইন ১৯৮৫ অনুসারে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। বাংলাদেশ সরকার দেশের হোমিওপ্যাথির একটি মডেল একাডেমিক ইনস্টিটিউট হবে। বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ড (বিএইচবি) হোমিওপ্যাথিক শিক্ষা, অসামান্য রোগীদের যত্ন এবং গবেষণা কার্যক্রমের ক্ষেত্রে দক্ষতার জন্য সমৃদ্ধ হয়েছে। বিএইচবি বিএইচএমএস (হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন ও

ডিএইচএমএস সিলেবাস অনুযায়ী ৪র্থ বর্ষের পাঠ্যক্রম

(ডিএইচএমএস – ৪র্থ বর্ষ) প্রথম পত্র: মেটেরিয়া মেডিকা সহায়ক গ্রন্থ- পূর্ববর্তী বর্ষগুলোতে দেয়া বইসমূহের সাথে- Materia Medica Viva – George Vithoulkas Textbook of Materia Medica – Ad. Lippe (MD) Textbook of Homeopathic Materia Medica – George Royal (MD) Plain talks on Materia Medica with Comparison – W. Ide Pierce (MD) Physiological Materia Medica – William

ডিএইচএমএস সিলেবাস অনুযায়ী ৩য় বর্ষের পাঠ্যক্রম

(ডিএইচএমএস – ৩য় বর্ষ) প্রথম পত্র: অর্গানন অব মেডিসিন সহায়ক গ্রন্থ- Organon of Medicine (5th & 6th edition combined) – R. E. Dudgeon (MD) & W. Boerike (MD) Annoated text of Hanemann’s Organon of Medicine – Dr. Shivnarayan Ganguli & Dr. S. K. Dubbey দ্বিতীয় পত্র: মেটেরিয়া মেডিকা সহায়ক গ্রন্থ- দ্বিতীয় বর্ষের বইসমূহের সাথে- তুলনামূলক

ডিএইচএমএস সিলেবাস অনুযায়ী ২য় বর্ষের পাঠ্যক্রম

(ডিএইচএমএস – ২য় বর্ষ) প্রথম পত্র: অর্গানন অব মেডিসিন সহায়ক গ্রন্থ- অর্গানন অব মেডিসিন- ডা. জি. দির্ঘাঙ্গী (বাংলা ও ইংরেজি) Clinical Organon of Medicine – Farokh Jamshed Master Gems of Organon – P.B. Thombre দ্বিতীয় পত্র: মেটেরিয়া মেডিকা ও টিস্যু রেমেডিস সহায়ক গ্রন্থ- প্রথম বর্ষের বইসমূহ (মেটেরিয়া মেডিকা) The Twelve Tissue Remedies of Schussler –

ডিএইচএমএস সিলেবাস অনুযায়ী ১ম বর্ষের পাঠ্যক্রম

(ডিএইচএমএস – ১ম বর্ষ) প্রথম পত্র: হোমিওপ্যাথির নিয়মনীতি সহায়ক গ্রন্থ হোমিওপ্যাথিক নিয়মনীতি – ডা. আবুল মনসুর আহাম্মদ ও ডা. গুরুদাস সরকার হোমিও দর্শন নিয়মনীতি – প্রিন্সিপাল মো. হোসেন হোমিওদর্শন – রাধারমন বিশ্বাস লেসার রাইটিং – এম. ভট্টাচার্য্য দ্বিতীয় পত্র: অর্গানন অব মেডিসিন সহায়ক গ্রন্থ অর্গানন অব মেডিসিন- Dr. W. Boericke অর্গানন অব মেডিসিন- Dr. B.