Ferrum Phos (ফেরাম ফস): গুরুত্বপূর্ণ রুব্রিকসহ

১২১.১। ফেরাম ফসফরিকাম (Ferrum Phos)।
DHMS (2nd year).
♣ সমনামঃ ফেরিক ফসফেট, ফেরি ফসকাম, ফসফেট অব আয়রন।
♣ মায়াজমঃ সোরিক, সাইকোটিক, টিউবারকুলার।
♣ সাইডঃ ডানপাশ।
♣ কাতরতাঃ শীতকাতর।
♣ উপযোগিতাঃ শ্লেষ্মা ও রসপ্রধান ধাতুতে প্রযোজ্য। ফেরাম ফসের রোগী রক্তাধিক্যযুক্ত ও বলবান নয়, সে দুর্বল স্নায়ুবিক প্রকৃতির, রক্তশূন্য কিন্তু মাঝে মাঝে রক্তোচ্ছ্বাস দেখা দিয়ে রক্তিমাভ হয়ে ওঠে।
♣ ক্রিয়াস্থলঃ রক্ত, শিরা, রক্ত সঞ্চালন, হৃদপিণ্ড, ফুসফুস, কান, মস্তিক, স্নায়ু, শ্লৈষ্মিক, ঝিল্লি, অস্হি।
♣ বৈশিষ্ট্যঃ ফেরাম ফস সম্পর্কে ডা. সুসলারের নিজের লেখা সর্বশেষ এডিশন থেকে এল. এইচ ট্যাফেলের অনুবাদ নিম্নরূপ : “লোহা এবং এর সল্টসে অক্সিজেন আকর্ষণের ধর্ম বয়ে রক্তকণিকার মধ্যকার লৌহ শ্বাসগ্রহণের বাতাস থেকে অক্সিজেন সংগ্রহ করে, অতঃপর সারা শরীরের টিস্যুতে অক্সিজেন সরবরাহ করে। সালফার রক্তকণিকা ও অন্যান্য কোষের মাঝে সালফেট অব পটাশ আকারে বিদ্যমান থাকে, তা অক্সিজেন সরবরাহ সহায়তা করে বিভিন্ন কোষে যেখানে রয়েছে লোহা ও সালফেট অব পটাশ।
♣ ফিজিওলজিক্যাল কাজঃ এ ওষুধে আইরন বা লোহা ও ফসফরাস এ দুটো উপাদান রয়েছে। এতে লোহা থাকায়, লোহার সাথে সামঞ্জস্য রেখে ফেরাম ফসে স্হানিক রক্ত সঞ্চয়ের প্রবণতা পরিলক্ষিত হয়, ও অপর উপাদান ফসফরাসেরর মতো একে ফুসফুস ও পাকস্হীর সাথে সম্বন্ধযুক্ত হতেও দেখা যায়। তাছাড়া এ দুটো উপাদানের মিলনের ফলে একে রক্ত স্রাবের শ্রেষ্ঠ ওষুধ হিসেবে কাজ করতে দেখা গেছে।
♣ সারসংক্ষেপঃ শ্লেষ্মা ও রসপ্রধান ধাতু, রোগী দুর্বল স্নায়বিক প্রকৃতির, রক্তশূন্য কিন্তু মাঝে মাঝে রক্তোচ্ছ্বাস দেখা দিয়ে রক্তিমাভ হয়ে ওঠে। শয্যা কঠিন মনে হওয়ার অনুভূতি। প্রাতে, সন্ধাকালে, রাতে, নড়াচড়ায়, স্পর্শে, ডান পাশে, উত্তাপে ও গোলমালে বাড়ে। রক্তস্রাবে, স্হির হয়ে থাকলে, ঠাণ্ডা প্রয়োগে ও বিশ্রামে কমে। বাচালতা ও প্রফুল্লতা, বিষণ্নতা, শারীরিক ও মানসিক অবসাদ, বিস্তৃতিপরায়ণ, তন্দ্রাচ্ছন্নভাব, উৎকণ্ঠা ও ভয়। নাড়ির গতি অস্বাভাবিক : অতিশয় দ্রুত গতি। প্রাদাহিক পীড়ার প্রথমাবস্হা। বেদনা হঠাৎ আসে হঠাৎ যায় এবং ভ্রমণশীল বেদনা।
♣ অনুভূতিঃ শয্যা কঠিন মনে হওয়ার অনুভুতি।
< বৃদ্ধিঃ প্রাতে, সন্ধাকালে, রাতে, নড়াচড়ায়, স্পর্শে, ডানপাশে, উত্তাপে, উত্তেজনায়, চাপে, বাইরের খোলা বাতাসে, আহারের সময়ে ও পরে, টক খাদ্যে, ঘাম চাপা পড়ে, ঠাণ্ডা পানীয়ে, মাংসে, কফি, চা বা কেক খেলে, ভোর ৪ টা থেকে ৬টায়, ধাক্কা লাগলে, গরম পানীয়ে, গোলমালে।
> হ্রাসঃ ধীরে ধীরে বেড়ালে, স্হির হয়ে থাকলে, রক্তস্রাবে, ঠাণ্ডা বাতাসে, ঠাণ্ডা প্রয়োগে, ভেজা হাওয়া, ঠাণ্ডা পানীয়ে, বিশ্রামে ।
♣ কারণঃ গ্রীষ্মকালের উষ্ণদিবসে, ঘাম অবরুদ্ধতা থেকে, যান্ত্রিক আঘাতে, অতিরিক্ত সূর্যোত্তাপ ও ঠাণ্ডায়।
♣ ইচ্ছাঃ উত্তেজক খাবার পছন্দ।
♣ অনিচ্ছাঃ মাংস ও দুধে অনীহা।
♣ শত্রুভাবাপন্নঃ প্যারিস।
♣ ক্রিয়ানাশকঃ স্ট্রোন্টিয়াম ব্রোমেটাম।
♣ প্রয়োগঃ রাতে প্রয়োগ নিষিদ্ধ।
= উপরোক্ত লক্ষণ সাদৃশ্যে যে কোন রোগেই আমরা ফেরাম-ফস প্রয়োগ করতে পারবো।

গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি রুব্রিকঃ (ক্যান্ট রেপার্টরী অনুযায়ী)
১) ক্রোধ: কল্পনাসহ- B= অরাম, নাই-অ্যাসি। C= অ্যাম্ব্রা, আর্জ-নাই, চেলিডো, কোপেই, ড্যাফ, ফেরা-ফস, প্যালাডি, ফস, সিপি।
২) উৎকণ্ঠা: ভবিষ্যৎ সম্বন্ধে – A= ব্রায়ো, ক্যাল্ক, চিনি-সাল, সাইকু, ফস। B= অ্যানাকা, ব্যারা-কা, ব্যারা-মি, ক্যাল্ক-আ, কস্টি, চায়না, ডিজি, ড্রসে, ডালকা, ফেরা-ফস, জেলস, গ্র্যাফ, আই, ল্যাকে, মিউ-অ্যাসি, ন্যাট্র-কা, ন্যাট্র-মি, নাক্স-ভ, ফস-অ্যাসি, পালস, রাস, স্পঞ্জি, স্ট্যাফি।
৩) উত্তেজনা,উত্তেজনাপ্রবণ (Excitement, editable )/মানসিক আলোড়ন (Agitation )/আবেগপূর্ণ (Emotional)- A= অ্যাকোন, আর্জ-নাই,অরাম, বেল, ক্যামো, কফি, কলিন, গ্র্যাফ, হায়োস, ক্যালি-ব্রো, ক্যালি-আই, ল্যাক-ক্যান, ল্যাকে, মস্কাস, ন্যাট্র-মি, নাই-অ্যাসি, নাক্স-ভ, ওপি, ফস-অ্যাসি, ফস, পালস, স্ট্রিকনি। B= অ্যানাকা, অ্যাপিস, আর্নি, আর্স, অ্যাসাফ, অ্যাসের, ব্রায়ো, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-ফস, ক্যাল্ক-সাল, ক্যাম্ফ, ক্যানা-ই, কার্বো-সাল, কার্বো-ভে, কার্ল, কস্টি, চেলিডো, চায়না, সাইকু, কোবা ককুল, কুপ্রা, ড্যাফ, ডিজি, ফেরাম, ফেরা-ফস, জেলস, গ্লোন, ইগ্নে, আই, ক্যালি-আর্স, ক্যালি-ফস, ক্যালি-সাল, ল্যাসিথি, লিথি, লাইকো, ম্যাগ-মি, মার্ক, ন্যাজা, ন্যাট্র-কা, পেট্রো, প্ল্যাটি, পডো, সোরিন, সিপি, সাইলি, স্ট্র্যামো, সালফ, সাল-অ্যাসি, ট্যারেন্টু, টিউক্রি,থিয়া, থুজা, ভ্যালের, ভিরেট।
৪) ভয়: মৃত্যুর- A= অ্যাকোন, আর্স, ক্যাল্ক, সিমিসি, জেলস, ল্যাকে-ক্যান, নাই-অ্যাসি, ফস, প্ল্যাটি। B= অ্যাগ্নাস, অ্যাপিস, আর্জ-নাই, বেল, ব্রায়ো, ক্যাক্টা, ক্যানা-ই, কস্টি, ককুল, কফি, ক্রোটেল-ক্যাস্ক, কুপ্রা, সাইক্লে, ডিজি, ফেরা-ফস, ফ্লু-অ্যাসি, হেলি, হিপার, ক্যালি-কা, ক্যালি-নাই, ল্যাকে, লাইকো, মস্কাস, নাক্স-ভ, ওপি, ফস-অ্যাসি, সোরিন, পালস, রাস, সিকেলি, স্পঞ্জি, ভিরেট।
৫) বিস্তৃতিপরায়ণ ( Forgetful) – A= অ্যাম্ব্রা, ব্যারা-কা, কার্বো-সাল, ককুল, কলচি, লাইকো, মার্ক, পেট্রো, ফস-এসিড, ফস, প্লাটি। B= অ্যাকোন, অ্যাগ্নাস, অ্যানাকা, আর্জ-নাই, আর্নি, অরাম, বেল, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-ফস, ক্যান্থা, কস্টি, চেলিডো, সাইকু, কোনি, ডিজি, ফেরা-ফস, ফ্লু-অ্যাসি, জেলস, গ্লোন, গ্র্যাফ, গুয়াই, ক্যালি-ব্রো, ক্যালি-ফস, ল্যাক-ক্যান, ল্যাকে, মিলি, ন্যাট্র-মি, রাস, সালফ, থুজা, টিউবার, জিঙ্ক ।
৬) মনোভাব সুন্দর : পর্যায়শীল- A= অ্যালু, বেল, বোভি, ফেরাম, ইগ্নে, আই, লাইকো, প্ল্যাটি, সার্সা, সাল-অ্যাসি। B= কার্বো-অ্যানি, চায়না, ক্রোকা, কুপ্রা, ড্রসে, ফেরা-ফস, গ্র্যাফ, ক্যালি-কা, ন্যাজা, নাক্স-ম, পালস, সালফ।
৭) বিষন্নতা, মানসিক অবসাদ ( Sadness, mental depression) : A= অ্যাকোন, আর্স, আর্স-আই, অরাম, অরাম-মি, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-আর্স, ক্যাল্ক-সাল, কার্বো-অ্যানি, কার্বো-সাল, কস্টি, ক্যামো, চায়না, সিমিসি, ক্রোট-ক্যাস্ক, ফেরাম, ফেরা-আই, জেলস, গ্রাফ, হেলি, হেপ্পো, ইগ্নে, আই, ক্যালি-ব্রো, ক্যালি-ফস, ল্যাক-ক্যান, ল্যাকে, ল্যাপ্টে, লিলি-টি, লাইকো, মার্ক, মেজের, মিউরে, ন্যাট-আর্স, ন্যাট্র-কা, ন্যাট্র-মি, ন্যাট্র-সাল, নাই-অ্যাসি, প্লাটি, সোরিন, পালস, রাস, সিপি, স্ট্যানা, সালফ, থুজা, ভিরেট। B= অ্যাবিস-না, ইস্কু, অ্যাগ্নাস, অ্যালু, অ্যাম্ব্রা, অ্যামন-কা, অ্যামন-ম, অ্যানাকা, অ্যান্টি-ক্রু, আর্জ-মে, আর্নি, অ্যাসাফ, ব্যারা-মি, বেল, ব্রোমি, ব্রায়ো, বিউফো, ক্যাক্টা, ক্যাম্ফ, ক্যানা-স্যাট, ক্যান্থা, ক্যাপসি, কার্বো-ভে, চেলিডো, চিনি-আর্স, চিনি-সাল, সাইকু, ক্লিমে, ককুল, কফি, কলচি, কলো, কোনি, কর্না, ক্রোকা, ক্রোটেল, কুপ্রা, কিউরে, সাইক্লে, ডিজি, ড্রসে, ডালকা, ফেরা-আর্স, ফেরা-ফস, গ্র্যাটিও, হেলোনি, হিপার, হুরা, হাইড্রা, হায়োস, ইন্ডিগো, ক্যালি-আর্স, ক্যালি-কা, ল্যাক-ডি, লরো, ল্যাসি, ম্যাঞ্চে, ম্যাঙ্গে, ন্যাজা, ন্যাট্র-ফস, নাক্স-ভ, ওলিয়ে, পেট্রো, ফস-অ্যাসি, ফস, ফাইটো, প্লাম্বা, রাস-ভ্যানে, রুটা, সাইলি, স্পঞ্জি, স্ট্যাফি, স্টিলি, স্ট্রনসি, স্ট্রিকনি, সাল-অ্যাসি, ট্যাবে, ভিরেট-ভি, ভিস্কা।
৮) অত্যানুভূতিযুক্ত : গোলমালে / গোলমালে বিরক্তি জন্মে (Noise, averse to) – A= অ্যাকোন, অ্যাসের, বেল, বোরা, চায়না, চিনি-আর্স, কফি, কোনি, ক্যালি-কা, নাই-অ্যাসি, নাক্স-ভ, ওপি, সিপি, সাইলি, থেরিডি। B= আর্জ-নাই, আর্নি, আর্স, আর্স-আই, অরাম, ব্যারা-কা, ব্রায়ো, ক্যাল্ক, কার্বো-ভে, কস্টি, ক্যামো, ফেরাম, ফেরা-আর্স, ফেরা-ফস, ফ্লু-অ্যাসি, হেলি, ইগ্নে, ইপি, ক্যালি-ফস, ল্যাক-ক্যান, ল্যাকে, লাইকো, লাইসি, মেডো, ন্যাট্র-কা, ন্যাট্র-সাল……
৯) প্রাতে (Morning) বাড়ে- A= অ্যাগারি, অ্যামন-মি, আর্জ-মে, আর্স-আই, অরাম, ব্রায়ো, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-ফ্লু, কার্বো-অ্যানি, কার্বো-সাল, কার্বো-ভে, ক্যামো, চেলিডো, সিনা, ক্রোকা, ক্যালি-বাই, ক্যালি-নাই, ল্যাকে, ন্যাট-আর্স, ন্যাট্র-মি, নাই-অ্যাসি, নাক্স-ভ, ওনোস, পেট্রো, ফস-অ্যাসি, ফস, পালস, রডো, রাস, রোমেক্স, সিপি, স্পাইজে, স্কুই, সালফ, ভ্যালের । B= অ্যাবিস-নাই, অ্যাকোন, অ্যালু, অ্যালোজ, অ্যাম্রা, অ্যানাকা, অ্যান্টি-ক্রু, অ্যাপিস, আর্জ-নাই, আর্নি, আর্স, ব্যাপটি, ব্যারা-কা, ব্যারা-মি, বার্বে, বোরা, বোভি, ক্যান্হা, ক্যাপসি, কস্টি, সিন্নাবে, সিস্টা, কোকা, ককুল, কফি, কোনা, ডিজি, ডায়োস্কো, ড্রসে, ডালকা, ইউপে-পার্ফ, ইউফ্রে, ফেরাম, ফেরা-আর্স, ফেরা-ফস, গ্যাম্বু, জেলস, গ্র্যাফ,,,,,
১০) সন্ধাকালে (Evening) বাড়ে- অ্যালু, অ্যাম্ব্রা, অ্যামন-কা, অ্যান্টি-ক্রু, অ্যান্টি-টা, আর্নি, বেল, ব্রায়ো, ক্যাল্ক, ক্যাপসি, কার্বো-অ্যা, কার্বো-ভে, কার্বো-সাল, কস্টি, ক্যামো, কলচি, সাইক্লে, ইউফ্রে, হেলি,হায়োস, ক্যালি-নাই, লাইকো, ম্যাগ-কা, মিনিয়ে, মার্ক, মেজের, ন্যাট্র-ফ, নাই-অ্যাসি, ফস-অ্যাসি, ফস, পিক্রি-অ্যাসি, প্ল্যাটি, প্লাম্বা, পালস, র্যানান-স্ক্লে রোমেক্স, রুটা, সিপি, সাইলি, সিনাপি-না, স্ট্যানা, স্ট্রনসি, সালফ, সাল-অ্যাসি, ভ্যালের। B= অ্যাকোন, অ্যালি-স্যা, অ্যামন-কা, অ্যানা-কা, অ্যাপিস, আর্জ-নাই, আর্স, আর্স-আই, অ্যাসাফ, অ্যাসের, ব্যাপ্টি, ব্যারা-কা, বোরা, বোভি, ব্রোমি, ক্যালাডি, ক্যাল্ক-সাল, সিমিসি, ককুল, কলো, কোনি, ক্রোকা, ডালকা, ফেরাম, ফেরা-আর্স, ফেরা-আই, ফেরা-ফস, ফ্লু-অ্যাসি, গ্যাম্বু, গুয়াই,,,
১১) রক্তাল্পতা ( Anaemia) – A= আর্স, বোরা, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-ফস, চায়না, ফেরাম, ফেরা-আর্স, গ্রাফ, হেলি, ক্যালি-আর্স, ক্যালি-কা, ক্যালি-ফস, ম্যাঙ্গে, মেডো, মার্ক, ন্যাট্র-মি, নাই-অ্যাসি, ফস, প্লাম্বা, পালস, স্কুই, স্ট্যাফি, সালফ।
B= অ্যাসি-অ্যাসে, আর্নি, আর্জ-মে,আর্জ-নাই, বেল, ব্রায়ো, কার্বো-ভে, কস্টি, ককুল, কোনি, ক্রোটেল, সাইক্লে, ফেরা-আই, ফেরা-ফস, হেলোনি, ইগ্নে,,,
১২) রক্তস্রাব (Haemorrhage)- A= আর্নি, বেল, বোথ্রো, ক্যাল্ক, ক্যাল্ক-সাল, ক্যান্থা, কার্বো-ভে, চায়না, ক্রোটেল, ইরিজি, ফেরাম, হ্যামামে, ইপি, মেলিলো,মিলি, ন্যাট্র-মি, নাই-অ্যাসি, নাক্স-ভ, ফস, পালস, স্যাবি, সালফ, সাল-অ্যাসি। B= অ্যাকোন, অ্যালু, অ্যান্টি-ক্রু, অ্যাপিস,,, ফেরা-আই, ফেরা-ফস, হায়োস, আই, লিডাম,,,,
১৩) শয্যা কঠিন মনে হওয়ার অনুভূতি (Hard bet sensation of)- A= আর্নি, সাইলি। B= আর্স, ব্যাপটি, ফেরাম, ফেরা-ফস, পাইরো, রাস, রুটা।
১৪) নাড়ির গতি অস্বাভাবিক : অতিদ্রুত গতি- A= অ্যাকোন, অ্যাপিস, আর্স, আর্স-আই, অরাম, বেল, ব্রায়ো, কলিন, কোনি, ক্রোট-কা, ফেরা-ফস, ফস, জেলস, গ্লোন, আই, মার্ক, ন্যাট্র-মি, নাক্স-ভ, ওপি, ফস-অ্যাসি, ফস, পাইরো, রাস, সিকেলি, সাইলি, স্পাইজে, স্ট্র্যামো, সালফ, ভিরেট-ভি।
১৫) সাধারণ ফোলা: আক্রান্ত অংশে (Affected parts of)- A= অ্যাকোন, অ্যাক্টি-স্পাই, বেল, ব্রায়ো, ক্রোট-হ, ইউফ্রে, জেলস, ম্যাগ-কা, পালস, রডো, রাস, সিপি, সাইলি, স্পঞ্জি, সালফ। B= অ্যাপিস, আর্স, আর্স-আই, ক্যাল্ক, ক্যান্হা, কস্টি, ফেরাম, ফেরা-আর্স, ফ্লু-অ্যাসি, হিপার, আই, ক্যালি-বাই, ক্যালি-আই, ল্যাকে, লিডাম, লাইকো, অ্যাসি-মিউর,,,,,,,।
#সংকলনে: ডা.এইচ.এম.আলীমুল হক
ডিএইচএমএস (বিএইচবি), কিউএইচসিবি (বিইউবি)
চেম্বার: আলহক্ব হোমিও ফার্মেসী, মৌচাক, মিজমিজি
সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, বাংলাদেশ।
চিকিৎসা বিষয়ক পরামর্শের জন্য: ১০০টাকা বিকাশ করুন
(বিকাশ পার্সনাল: ০১৯১৬-৫১১ ৩৩৭) তারপর কল করুন
এই নাম্বারে: 01616-511337, 01816-511337